ডেঙ্গু থেকে বাঁচতে আল্লাহর কাছে তওবা করতে হবে: আমীর, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ

প্রকাশিত: ১১:৩৯ অপরাহ্ণ, আগস্ট ৩, ২০১৯

রংপুর উপনির্বাচনে ইসলামী আন্দোলন অংশ না নেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলে জানিয়েছেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর আমীর মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করীম।

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর আমীর মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করীম পীর সাহেব চরমোনাই বলেছেন, দেশে মহামারী আকার ধারণ করা ডেঙ্গু থেকে বাচতে সকলকে তওবা ইস্তেগফার করে আল্লাহর কাছে দোয়া করতে হবে। তিনি বলেন, দেশে এখন আল্লাহর নাফরমানি বেড়েই চলছে। অপরদিকে খুন-গুম, ধর্ষণ, দুর্নীতি দেশ ছেয়ে গেছে। এমতাবস্থায় সকলকে তওবা ইস্তেগফার করে আল্লাহর কাছে দোয়া করতে হবে দেশের জন্য, মানুষের জন্য। রংপুর উপনির্বাচনে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ অংশ গ্রহণ করবে না বলেও জানিয়েছেন তিনি।

আজ শনিবার (৩ আগষ্ট) বিকেলে পুরানা পল্টনস্থ কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত ইসলামী আন্দোলনের মজলিসে আমেলার এক জরুরী সভায় সভাপতির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

মুফতি সৈয়দ রেজাউল করীম বলেন, দেশ ক্রমেই ভয়াবহ অবস্থার দিকে ধাবিত হচ্ছে। একদিকে ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে ব্যর্থ সরকার, অপরদিকে দেশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র চললেও সরকার সেদিকে কোন ভ্রুক্ষেপ করছেন না। তিনি বলেন, দেশের সার্বিক পরিস্থিতির কারণে সচেতন দেশবাসী শঙ্কিত। দেশের স্বাধীনতা নিয়ে উদ্বেগ ও উৎকন্ঠা বিরাজ করছে।

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের আমীর বলেন, ডেঙ্গুর ভয়াবহতা বেড়েই চলেছে। রাজধানীসহ বিভিন্ন স্থানে ইতোমধ্যে হাজার হাজার মানুষ ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়েছে। ইতোমধ্যে ডাক্তার, ছাত্র, নারী ও শিশুসহ বহু মানুষ ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেছেন। ডেঙ্গু প্রতিরোধে সরকার ব্যর্থ হয়েছে। হাসপাতালগুলো ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগীদের সামাল দিতে হিমশিম খাচ্ছে। পর্যাপ্ত সেবা ও ওষুধ পাওয়া যাচ্ছে না। অন্য দিকে রাজধানীর বাইরে দেশের বেশির ভাগ জেলাতেই ছড়িয়ে পড়েছে ডেঙ্গু। সরকারের এমন দায়িত্বহীনতার কারণেই ডেঙ্গু আজ ভয়াবহরূপ ধারণ করেছে এবং মানুষের ব্যাপক প্রাণহানি হচ্ছে। সরকার এ দায় এড়াতে পারবে না।

ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব অধ্যাপক মাহবুবুর রহমানের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত সভায় উপস্থিত ছিলেন ঢাকা মহানগর দক্ষিণ সভাপতি মাওলানা ইমতিয়াজ আলম, ইঞ্জিনিয়ার আশরাফুল আলম, মাওলানা আহমদ আবদুল কাইয়ূম, মাও. লোকমানাই হোসাইন জাফরী, আলহাজ্ব হারুন অর রশিদ, মাও. সৈয়দ মুমতাজুল করীম মোস্তাক, প্রিন্সিপাল মাও. শেখ ফজলে বারী মাসউদ, আলহাজ্ব আব্দুর রহমান, এডভোকেট শওকত আলী হাওলাদার প্রমুখ।

মন্তব্য করুন