বদর যুদ্ধের চেতনায় ভোটারহীন সরকারের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে অবতীর্ণ হতে হবে : পীর সাহেব চরমোনাই

প্রকাশিত: ৯:৫২ অপরাহ্ণ, মে ২৩, ২০১৯

কৃষক শ্রমিকদের ন্যায্য অধিকার এবং দুর্নীতিমুক্ত বাংলাদেশ গড়তে খোদাভীরু লোকের শাসনের বিকল্প নাই।


ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের আমীর মুফতী সৈয়দ মুহাম্মাদ রেজাউল করীম পীর সাহেব চরমোনাই বলেছেন, বদরযুদ্ধ অন্যায় ও অসত্যের বিরুদ্ধে হকের লড়াই। বদর যুদ্ধের চেতনা থেকে শিক্ষা নিয়ে বর্তমান ভোটারহীন সরকারের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে অবতীর্ণ হতে হবে।

তিনি বলেন ইসলাম একটি সাধারণ সৃষ্টির স্বাধীনতাও নিশ্চিত করেছে। অথচ বর্তমান সময়ে মানুষেরও স্বাধীনতা নেই। মানুষের বাক-স্বাধীনতা ও ভোটাধিকার নিশ্চিত করতে হলে ইসলামের বিজয় নিশ্চিত করতে হবে। তিনি বলেন, কৃষি প্রধান দেশে আজ কৃষকরা ন্যায্য অধিকার থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। কৃষির এই অর্থনৈতিক সেক্টরের অস্তিত্ব আজ বিলীন হবার পথে। এক শ্রেণির সিন্ডিকেটদের হাত আজ এই সেক্টর জিম্মী হয়ে আছে।

আজ বৃহস্পতিবার (১৭ রমজান) ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ ঢাকা মহানগর দক্ষিণের উদ্যোগে রাজধানীর কাজী বশির মিলনায়তনে ‘ঐতিহাসিক বদরের চেতনা ও মুসলিম বিশ্ব’ শীর্ষক আলোচনা সভা ও ইফতার মহিফিলে প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

পীর সাহেব চরমোনাই বলেন, রূপপুর পারমানবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রে আজ দেশবাসী যে ভয়াল দুর্নীতি দেখেছে তা দুর্নীতির ইতিহাসকেও হার মানায়।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে প্রিন্সিপাল সৈয়দ মোসাদ্দেক বিল্লাহ আল মাদানী বলেন, জালিম সরকার ভোট ডাকাতি করে ক্ষমতায় অধিষ্ঠিত হয়েছে। দুর্নীতি, দুঃশাসন ও লুটেরাদের বিরুদ্ধে বদরের চেতনায় লড়াইয়ে অবতীর্ণ হতে হবে। খোদাভীরু নেতৃত্বের অভাবেই রূপপুরপারমানবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের এই দুর্নীতি।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে মহাসচিব অধ্যক্ষ হাফেজ মাওলানা ইউনুছ আহমদ বলেন, রমজান তাকওয়া অর্জনের শিক্ষা দেয়। আর এই খোদাভীতি অর্জন করতে আলকুরআনকে আকড়ে ধরতে হবে।

সভাপতি মাওলানা মুহাম্মাদ ইমতিয়াজ আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন সংগঠনের প্রেসিডিয়াম সদস্য প্রিন্সিপাল সৈয়দ মোসাদ্দেক বিল্লাহ আল-মাদানী, মহাসচিব অধ্যক্ষ মাওলানা ইউনুছ আহমাদ, আল্লামা নুরুল হুদা ফয়েজী, যুগ্ম মহাসচিব অধ্যাপক এটিএম হেমায়েত উদ্দিন, অধ্যাপক মাহবুবুর রহমান, মাওলানা গাজী আতাউর রহমান, আলহাজ্ব আমিনুল ইসলাম, প্রচার সম্পাদক মাওলানা আহমদ আবদুল কাইয়ুম, ইঞ্জিনিয়ার আশরাফুল আলম, নগর উত্তর সভাপতি প্রিন্সিপাল মাওলানা শেখ ফজলে বারী মাসউদ, মাওলানা এবিএম জাকারিয়া, ছাত্রনেতা এম হাসিবুল ইসলাম, ডা. শহিদুল ইসলাম, প্রকৌশলী জোবায়ের হোসেন, হুমায়ূন কবীর, মুফতী শেখ নূরউন নাবী, মাওলানা আব্দুর রাজ্জাক, এইচ এম সাইফুল ইসলাম, অধ্যাপক ফজলুল হক মৃধা প্রমুখ।

সভাপতির বক্তব্যে মাওলানা ইমতিয়াজ আলম বলেন, মুসলমানগণ পবিত্র কুরআন ছেড়ে দেয়ার কারণেই আরচীন, ফিলিস্তিন, সিরিয়াসহ বিভিন্ন স্থানে নির্যাতিত হচ্ছে। এহেন পরিস্থিতিতে আদর্শ সমাজবিনির্মাণে বিশ্ব মুসলিমকে বদরী চেতনায় উজ্জিবিত হয়ে খোদাভীরু নেতৃত্ব তৈরির কোনো বিকল্প নেই।

মন্তব্য করুন