আজকের (২০-০৫-২০১৯) আলোচিত সংবাদের ওপর “ভয়েস-পাটকেল”

প্রকাশিত: ৬:০২ অপরাহ্ণ, মে ২০, ২০১৯

-ধর্ষণের ব্যাপকতার একটি কারণ ধর্মীয় ওয়াজ মাহফিলে নারীবিদ্বেষী বক্তৃতা-খুশী কবীর

  • খুশী কবিরেরা ধর্ষণকেও উপভোগ করেন। কারণ, দুনিয়ার সকল ওয়াইজই ধর্ষণের বিপক্ষে কথা বলেন, যা খুশিকবিরদের আঁতে ঘা লাগে।

-১৫ টাকার ওষুধের দাম ৬০০ টাকা! কাঁদলেন অসহায় রিকশাচালক-ইত্তেফাক

  • এইটা কী কোনো নিউজের বিষয় হইলো? ১০ হাজার টাকার অপারেশন যেখানে ডাক্তারেরা দেড় লাখে করছেন সেখানে ১৫ টাকার ঔষধ ৬০০ টাকায় না হলে ঔষধের উপর রোগীর আস্থাই আসবে না।

-‘অর্থ দেয়নি বলে র‌্যাংকিং থেকে বাদ পড়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়’ -শিবলী রুবাইয়াত (ডিবিসি)

  • “ঠাকুর ঘরে কে রে? আমি কলা খাই না” অর্থ কেলেংকারীতের এতই এগিয়েছি আমরা যে, সবকিছুতেই অর্থ টানি। আসল কথা হইলো- আমার নানা বলতেন, কুত্তার পেটে ঘি হজম হয় না।

-ছাত্রলীগের কমিটি: পদবঞ্চিতদের আন্দোলন স্থগিত -সমকাল

  • পদবঞ্ছিতরা আন্দোলন স্থগিত না করলে কেন্দ্রীয় কমিটির পক্ষ থেকে বিশেষায়িত পদ্ধতিতে ডিম থেরাপীর ব্যবস্থা করবে কী না এইটা একটা মেজর কারণ।

-ইসলামকে বিশ্বের সবচেয়ে শান্তির ধর্ম ঘোষণা করল ইউনেস্কো -আজকের বিশ্ব

  • যাক বাবা, ইউনেস্কোর মাধ্যমে হলেও ইসলামকে শান্তির ধর্ম হিশেবে প্রমাণিত করা গেলো। এখন মুসলমান জঙ্গি নয়, এই ঘোষণার জন্য কই এপ্লিকেশন করতে হবে মাননীয় ইউনেস্কো একটু জানাবেন প্লিজ!

-খালেদা জিয়ার ইফতারে বরাদ্দ মাত্র ৩০ টাকা, বিএনপির নেতাকর্মীরা এখন ৩০টাকার ইফতার খেয়ে প্রতিবাদ করবেন-খবর

  • বাংলাদেশের ৯৮ শতাংশ মানুষ এখনও ১০-১৫ টাকার উপরে জনপ্রতি ইফতার খেতে পারছে না। আপানেরা ৩০ টাকার না খেয়ে বরং ৩০০ টাকার খেয়ে একটু অভিনব পদ্ধতিতে প্রতিবাদ করুন। আমাদেরকেও সঙ্গে রাইখেন।

-অভিমান থেকে পদত্যাগের কথা বলেছিলাম: গোলাম রাব্বানী -যুগান্তর

  • মাঝেমধ্যে অনাকাঙ্ক্ষিতভাবে মুখ থেকে বমি বের হয়, এইগুলো আবার খেয়ে ফেললে লজ্জার কিছু নেই।

-বালিশ কেনা ও তোলার খরচ শুনে হাসলেন দুই বিচারপতি -দেশরুপান্তর

  • হাসবেন তো, হাসবেন না? দেশের আবেগী জনতা বালিশ দেখে চিল্লানো শুরু করল, আর বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ, শেয়ারবাজার, হলমার্ক, ফার্মার্স ব্যাংকের গ্রেট লুটপাট সব ভুলে গেল। এগুলো মনে পড়লে বিচারপতি কেন- পাগলেও হাসবে, আমিও।

-দুর্নীতির প্রতিবাদে ঢাকায় বালিশ বিক্ষোভ হবে -দেশ রুপান্তর

  • বালিশকে নরম পাইছেনতো তাই বালিশ হাতে নিয়ে বিক্ষোভ, দেখি ফ্রিজ বা এসি হাতে নিয়ে বিক্ষোভ করেন, ঐগুলাতেও তো এরচে বেশি দুর্নীতি হইছে। নরম পাইলেই আরাম হয়, নারায়নগঞ্জের শিক্ষককে কানে ধরায় আরামের জিনিষ কানে ধরে সবাই প্রতিবাদ করল, কিন্তু বিসিএস শিক্ষককে ছাত্রলীগ লাত্থি দিল, কই সকল শিক্ষক মিলে ছাত্রলীগের লাত্থির আবেদন করলেন না?

মন্তব্য করুন