শক্তি হারাচ্ছে মহামারী করোনা

প্রকাশিত: ৬:৪৮ অপরাহ্ণ, জুন ১, ২০২০

মহামারী করোনাভাইরাস শক্তি হারাচ্ছে। ভাইরাসটি আগের তুলনায় এখন অনেক কম মারাত্মক বলে মনে করছেন ইতালীয় গবেষক এলবার্তো জ্যানগ্রিলো। দেশটির স্যান রাফায়েলে হাসপাতালের এ প্রধান চিকিৎসক গতকাল রোববার স্থানীয় সংবাদমাধ্যমকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে এমন তথ্য জানান।

তিনি বলেন, সত্যি বলতে কি, ইতালিতে এখন এই ভাইরাসের কোনো অস্তিত্ব নেই। এক মাস আগেও যাদের করোনা শনাক্তকরণ টেস্ট করা হয়েছে তাদের থেকে গত ১০ দিনে টেস্ট করাতে আসা মানুষদের অনেককে সুস্থই দেখা গেছে। কারণ তাদের মধ্যে খুব সামান্য সমস্যাই বিদ্যমান ছিল।

যুক্তরাষ্ট্রে ভাইরাসটির তাণ্ডব শুরু হওয়ার আগে ইতালিতেই সবচেয়ে ভয়াবহ পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছিল। দেশটিতে এখন পর্যন্ত ২ লাখ ৩২ হাজারের বেশি মানুষ প্রাণঘাতী এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। মারা গেছে ৩৩ হাজারের বেশি মানুষ।

আল-জাজিরা বলছে, ইতালিতে মার্চ-এপ্রিলের তুলনায় মে মাসে পরিস্থিতির অনেক উন্নতি হয়েছে। ভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে দেয়া লকডাউনও শিথিল হতে শুরু করেছে সেখানে।

দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের উপ-মহাসচিব স্যান্ড্রা জাম্পা বলেন, ভাইরাসটি এখান থেকে চলে গেছে। এ বিষয়ে শুধু এখন একটি বৈজ্ঞানিক প্রমাণের প্রয়োজন। জনগণের মধ্যে যারা এ সম্পর্কিত বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছেন তাদের আমি এই ধরনের কাজ থেকে বিরত থাকার আহ্বান জানাই।

এর আগে মে মাসের মাঝামাঝি সময়ে ইতালির বায়ো-মেডিকো ইউনিভার্সিটি অব রোমের অধ্যাপক ম্যাসিমো গিকোজ্জি বলেন, ভাইরাসটি শুরুর দিকে খুব তাণ্ডব চালায়, তারপর আসতে আস্তে দুর্বল হয়ে সংকমণ ঘটানোর ক্ষমতা হারিয়ে ফেলে।

সেই সময় দেশটির মাইক্রোবায়োলজি এন্ড ভাইরোলজি ল্যাবের পরিচালক ম্যাসিমো ক্লেমেন্তি বলেন, প্রথমদিকে আমরা যেসব স্যাম্পল পেয়েছি তাতে দেখা গেছে, ভাইরাসগুলো খুবই সক্রিয়। কিন্তু কয়েক সপ্তাহ পরের নমুনায় থাকা ভাইরাসগুলো অতটা সক্রিয় না। সময় যত যাচ্ছে ভাইরাসের সক্রিয়তা ততই কমে যাচ্ছে।

তবে বিভিন্ন মেডিকেল কমিউনিটির মতে, জনগণের মধ্যে যে ভাইরাস মহামারির সৃষ্টি করেছে, তা স্থায়ী হয়ে যেতে পারে। অনেক স্থানে লকডাউন শিথিল করার পর দ্বিতীয় মেয়াদে প্রাদুর্ভাব বাড়ার শঙ্কা আছে। অনেকেই মনে করছেন, জনজীবন সাধারণ পর্যায়ে আর হয়তো নাও ফিরতে পারে। তবে সবকিছু পরিবর্তিত হয়ে যেতে পারে ভ্যাকসিনের আবিষ্কারের পর।

এমএম/পাবলিকভয়েস

মন্তব্য করুন