ভারতের ৫০ জেলায় তান্ডব চালাচ্ছে পঙ্গপাল : দিশেহারা সরকার

প্রকাশিত: ৮:০৮ অপরাহ্ণ, মে ২৮, ২০২০

ভারতের অন্তত ৫০ জেলায় পঙ্গপালের আক্রমণ অব্যাহত রয়েছে। জেলাগুলোতো রিতিমত তান্ডব চালাচ্ছে পঙ্গপাল। ইতিমধ্যে পঙ্গপাল দেশটির প্রায় ৫০ হাজার হেক্টর ফসলি জমি ধ্বংস করেছে। যেখানে যাচ্ছে সেখানকার শস্যই শেষ করে দিচ্ছে।

পঙ্গপালের হানায় কাঁপছে রাজস্থান, পাঞ্জাব, হরিয়ানা, মধ্যপ্রদেশ। একে দেশজুড়ে নিত্যদিন বাড়ছে করোনার কামড়, তার উপর পশ্চিম ও মধ্য ভারতের বিস্তীর্ণ অঞ্চলজুড়ে পঙ্গপালের হানা চাষিদের অথৈ জলে ফেলেছে। কেন্দ্র থেকে শুরু করে রাজ্য সরকার সবাই দিশেহারা হয়ে পড়ছে পঙ্গপাল ঠেকাতে। আগে থেকে এই পঙ্গপাল হানার সতর্কতা থাকলেও সেভাবে কোনও পদক্ষেপই করেনি কেন্দ্র।

কোটি কোটি টাকার ফসলের ক্ষতির পর অবশেষে ঘুম ভেঙেছে কেন্দ্রীয় কৃষিমন্ত্রকের। বুধবার কেন্দ্র পঙ্গপাল হানা রুখতে কয়েকটি পদক্ষেপ ঘোষণা করেছে। পঙ্গপাল তাড়াতে ভারতের রাজস্থান রাজ্যে ড্রোন প্রযুক্তির ব্যবহার করা হচ্ছে। এই প্রথম ভারতের কোনো রাজ্য পঙ্গপাল তাড়াতে ড্রোন প্রযুক্তি ব্যবহার করল।

গতকাল (বুধবার) রাজস্থানের রাজধানী জয়পুরের চোমু তেহসিল এলাকার সামোদ গ্রামে পঙ্গপাল তাড়াতে ড্রোন ব্যবহার করা হয়।

এক দিন আগে পঙ্গপাল হানা দেয় এই গ্রামের কৃষিজমিতে। পরে মধ্যপ্রদেশেও পঙ্গপাল তাড়াতে ড্রোন ব্যবহার করা হয়েছে। বিশেষভাবে তৈরি এই ড্রোনগুলো ব্যবহার করে ১০ লিটার করে কীটনাশক ছড়ানো যায়। এটি একধরনের শব্দ করে, যা পঙ্গপাল তাড়াতে সাহায্য করে।

চলতি বছরের শুরুতে পঙ্গপাল তাড়াতে ড্রোন প্রযুক্তি ব্যবহার করে সাফল্য পেয়েছে আফ্রিকার দেশ মৌরিতানিয়া। কৃষি জমি রক্ষায় কেনিয়াও ড্রোন ব্যবহার শুরু করতে যাচ্ছে। বিশ্বের বেশ কয়েকটি দেশে একই সময়ে পঙ্গপালের আক্রমণ অব্যাহত রয়েছে।

ভারতের কৃষি দপ্তর জানিয়েছে- এখনও পর্যন্ত মোট পাঁচটি রাজ্য পঙ্গপালদের কবলে পড়েছে। সেগুলি হল, রাজস্থান, পাঞ্জাব, গুজরাট, মধ্যপ্রদেশ ও মহারাষ্ট্র। এরপর উত্তরপ্রদেশেও এর হানার আশঙ্কা করা হচ্ছে। সতর্ক ওড়িশা, বিহারও। উত্তরপ্রদেশের ১৭টি জেলায় ইতিমধ্যেই সতর্কতা জারি করা হয়েছে।

কৃষিমন্ত্রকের আশঙ্কা, এই পঙ্গপালগুলি আগামী দিনে আরও সংখ্যায় বাড়বে। ছোট ছোট দলে দেশের অন্য রাজ্যে ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা থাকছে। আগামী দিনে বাংলাতেও এই পতঙ্গ হানা দেওয়ার সম্ভাবনা থাকছে।

#আরআর/পাবলিক ভয়েস

মন্তব্য করুন