সোমবার: মৃতের সংখ্যা ছাড়ালো ৫০০, আজ সর্বোচ্চ আক্রান্ত ১৯৭৫!

প্রকাশিত: ২:৫০ অপরাহ্ণ, মে ২৫, ২০২০

মহামারী করোনাভাইরাসে আজ সোমবার (২৫ মে) দেশে ২১ জনের মৃত্যু হয়েছে। এবং আক্রান্ত হয়েছে ১৯৭৫জন। এ নিয়ে দেশে মোট মৃত্যু হলো ৫০১জনের এবং আক্রান্ত হলো ৩৫ হাজার ৮১২জন। আজ মৃতদের ১৬জন পুরুষ এবং ৫জন নারী। এরমধ্যে সর্বোচ্চ চট্টগ্রাম বিভাগের ১১জন।

  • এছাড়া গত ২৪ ঘন্টায় সুস্থ হয়েছে সুস্থ ৪৩৩জন এবং এখন পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়েছেন ৭ হাজার ৩৩৪জন।

আজ সোমবার (২৫ মে) দুপুরে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নিয়মিত সংবাদ বুলেটিনের ব্রিফিংয়ে এসব তথ্য জানিয়েছেন, আইইডিসিআর এর মহাপরিচালক (ভারপ্রাপ্ত) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা।

সংশ্লিষ্ট খবর:
বৃহস্পতিবার: 
ফের সর্বোচ্চ আক্রান্ত ও মৃত্যুর নতুন রেকর্ড!

ব্রিফিংয়ে গত ২৪ ঘন্টায় ঢাকা ও ঢাকার বাইরে মোট ৪৮টি ল্যাবের তথ্য তুলে ধরা হয়েছে জানিয়েছেন ডা. নাসিমা সুলতানা। আজ নতুন যুক্ত হয়েছে রাজধানীর ল্যাবএইড হাসপাতাল।

নাসিমা সুলতানা জানান, গত ২৪ ঘন্টায় নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে ১৩৫৪৫টি। এরমধ্যে পরীক্ষা করা হয়েছে ৯৪৫১টি। এ নিয়ে দেশে মোট নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ২ লাখ ৫৩ হাজার ৩৪টি।

এছাড়াও গত ২৪ ঘন্টায় আইসোলেশনে গেছে ২৮১জন। ছাড় পেয়েছেন ৮৫জন। মোট আইসোলেশনে গেছেন ৪৭২৭জন। এখন পর্যন্ত মোট ছাড় পেয়েছেন ২২৫৮জন।

উল্লেখ্য, গত বৃহস্পতিবার পর্যন্ত দেশে একদিনে সর্বোচ্চ আক্রান্ত ও মৃতের নতুন রেকর্ড ছিলো ২১ জনের মৃত্যু এবং ১৭৭৩ জনের আক্রান্ত হওয়া।  শুক্রবার ‍মৃতের রেকর্ড সর্বোচ্চ ছাড়িয়ে ২৪জন হয়। অর্থাৎ প্রতিনিয়তই দেশে আক্রান্ত ও মৃতের রেকর্ড বাড়ছে। গতকাল শনিবার ফের সর্বোচ্চ ১৮৭৩জন আক্রান্তের রেকর্ড হয়। আজ সোমবার নতুন করে সর্বোচ্চ ১৯৭৫জন আক্রান্ত হওয়ার রেকর্ড হয়।

প্রসঙ্গ : বাংলাদেশে গত ৮ ই মার্চ করোনাভাইরাস প্রথম ধরা পড়ে। এরপর হুহু করে বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা। গত (১৫ মে) দেশে সর্বোচ্চ আক্রান্ত এবং সর্বোচ্চ মৃতের রেকর্ড হয়। আজ সোমবার (১৮ মে) সেটাও ছাড়িয়ে গেলো।

করোনাভাইরাসে বিশ্বব্যাপী মৃতের সংখ্যা এই মূহুর্তে তিন লাখ পার হয়ে সাড়ে তিনলাখ ছুঁই ছুঁই করছে। প্রতিমূহুর্ত বাড়ছে মৃতের সংখ্যা। ২৫ মে দুপুর ২ টা পর্যন্ত বিশ্বব্যাপী করোনায় মৃতের সংখ্যা ৩ লক্ষ ৪৬ হাজারেরও বেশি। এরমধ্যে শুধুমাত্র আমেরিকাতেই সাড়ে ৯৯ হাজারের বেশি মানুষ মারা গেছে

বাংলাদেশেও প্রতিদিন বাড়ছে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা। বিশেষ করে পরীক্ষা যতো বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যাও বাড়ছে হু হু করে। বাড়ছে ঝুঁকি। স্বাস্থ্যবিভাগ থেকে বারবার সতর্কবার্তা এবং নাগরিকদের সচেতনতার আহ্বার জানানো হচ্ছে।

এসএস

মন্তব্য করুন