ভার্চুয়াল কোর্টে ১৮ হাজার জামিন: প্রধান বিচারপতিকে ব্যারিস্টার সুমনের ধন্যবাদ

করোনাভাইরাস পরিস্থিতি

প্রকাশিত: ৩:০২ অপরাহ্ণ, মে ২২, ২০২০

ভার্চুয়াল কোর্টের মাধ্যমে ১৮ হাজার বন্দীর জামিন হওয়ায় প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন বিশিষ্ট আইনজীবি, সমাজকর্মী ও দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালের সাবেক প্রসিকিউটর ব্যারিস্টার সৈয়দ সায়েদুল হক সুমন।

প্রধান বিচারপতিকে উদ্দেশ্য করে ব্যারিস্টার সুমন বলেন, মাননীয় প্রধান বিচারপতিকে অন্তরের অন্তস্থল থেকে ধন্যবাদ জানাই। আমাদের দেশে ভার্চুয়াল কোর্ট ধারণাটি নতুন ছিলো। যেখানে আমাদের দেশে স্ট্রাকচারই নেই। সেখানে ন্যায়বিচারের জন্য আপনি এই ধারণাটি ছড়িয়ে দিয়েছেন। ২৮ হাজার জামিন হেয়ারিংয়ে ১৮ হাজার মানুষ জামিন পেয়েছে।  একজন আইন ও বিচারাঙ্গনের লোক হিসেবে আমি আপনাকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি।

ব্যারিস্টার সুমন আরো বলেন, মহামারী করোনাভাইরাসের কারণে শুধুমাত্র শুনানির অভাবে নরমাল মামলায় হাজার হাজার লোক জেলের ভিতরে ছিলো। আজকে যদি ভার্চুয়াল কোর্ট না হতো তাহলে এই মানুষ পরিবারের লোকেদের সাথে ঈদ করতে পারতো না। যেসব মামলায় এক সপ্তাহ জেলে থাকার কথা না, সেসব মামলায় দুই মাসও জেলে থেকেছে হাজার হাজার মানুষ। ভার্চুয়াল কোর্টের মাধ্যমে তারা মুক্তি পেয়েছে।

সুমন বলেন, খুব কম মানুষ আছেন যারা মানুষের হৃদয়ের কথা শোনেন। আপনি (মাননীয় প্রধান বিচারপতি) মানুষের হৃদয়ের কথা শুনেছেন। ভার্চুয়াল কোর্ট বাস্তবায়ন করেছেন। মানুষের মুক্তির ব্যবস্থা করেছেন। একজন আইন অঙ্গনের লোক হিসেবে আপনাকে ধন্যবাদ এবং কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি।

ভার্চুয়াল কোর্ট বাস্তবায়নে সরকারে সর্বিক সহযোগিতার জন্য এসময় মাননীয় আইনমন্ত্রী আনিসুল হক এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকেও ধন্যবাদ জানান ব্যরিস্টার সুমন।

উল্লেখ্য, ভার্চুয়াল কোর্টের বিভিন্ন আদালতে বর্তমানে ১৩৩৮৫টি আবেদন জমা আছে। এর মধ্যে আজকে  ৪৮টি আবেদন জমা পড়েছে।

প্রসঙ্গ, ভার্চুয়াল কোর্ট হলো কোর্টে না গিয়েই মোবাইল ফোনের মাধ্যম বা অনলাইনে জামিন আবেদন মামলার অন্যান্য কার্যাক্রম পরিচালনা ব্যবস্থা। এর জন্য ইতোমধ্যে একটি ওয়েবসাইট তৈরি করা হয়েছে। যার মাধ্যমে যে কেউ অনলাইনে আইনজীবির মাধ্যমে জামিন আবেদন করতে পারবে। জজ সাহেব তার রুমে থেকেই শুনানি শুনবেন। অর্থাৎ যার যার জায়গায় থেকেই আদালতের যাবতীয় কার্যক্রম চলবে।

/এসএস

মন্তব্য করুন