দেশবাসীকে চরমোনাই পীরের ঈদ শুভেচ্ছা ও অসহায়দের সেবার আহবান

প্রকাশিত: ৮:২৭ অপরাহ্ণ, মে ২১, ২০২০
পীর সাহেব চরমোনাই। ছবি : পাবলিক ভয়েস।

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর আমীর মুফতী সৈয়দ মোহাম্মদ রেজাউল করীম (পীর সাহেব চরমোনাই) পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে দেশবাসীর প্রতি আন্তরিক মোবারকবাদ ও অভিনন্দন জানিয়েছেন।

গণমাধ্যমে প্রেরিত এক শুভেচ্ছা বাণীতে পীর সাহেব চরমোনাই দেশের সর্বস্তরের জনতাকে আন্তরিক মোবারক জানিয়ে সকলের মঙ্গল কামনা করেন।

বাণীতে তিনি বলেন, রহমত, মাগফিরাত ও নাজাতের পয়গাম নিয়ে মাহে রমজান এসেছিল। পবিত্র রমজান সকলকে হিংসা-বিদ্বেষ, মারামারি, পরনিন্দা ও চোগলখোরী ছেড়ে দিয়ে আত্মসংযম অর্জন করতে শিখায় এবং আল্লাহর ভয় অর্জনের শিক্ষা দেয়। সকল প্রকার ফেৎনা-ফাসাদ ছেড়ে দিয়ে ভ্রাতৃত্বের বন্ধনে আবদ্ধ হয়ে সত্যিকার দেশপ্রেমিক হিসেবে ইসলাম, দেশ ও মানবতা কল্যাণে কাজ করার শিক্ষা দেয়। সকল ভেদাভেদ ভুলে সকলকে মানবতার কল্যাণে কাজ করা উচিত।

তিনি বলেন, এ বছর এমন এক মুহুর্তে পবিত্র ঈদুল ফিতর উদযাপন হচ্ছে, যখন পুরো বিশ্ব করোনা মহামারিতে বিপর্যস্ত। তিনি বলেন, এ বছর প্রকৃত অর্থে কোন মানুষের মনে আনন্দ না থাকলেও মুমিন মুসলমানদের প্রকৃত আনন্দ হচ্ছে আল্লাহর তা’য়ালার নির্দেশ মানার মধ্যে। যে যত বেশি আল্লাহর আনুগত্য বা ইবাদত করতে পারবে তার মনে ততবেশি আনন্দ। তারপরও যে আনন্দ থাকার কথা তা প্রকৃত অর্থে নেই।

তিনি সর্বস্তরের জনতার প্রতি ঈদুল ফিতরের অনাবিল আনন্দ, সুখ-সমৃদ্ধি, সুস্বাস্থ্য কামনা করেন। পীর সাহেব চরমোনাই দলীয় সর্বস্তরের নেতাকর্মীসহ সকল মুজাহিদ, মুহিব্বীন-এর প্রতি ঈদের শুভেচ্ছা জ্ঞাপন করেন।

শুভেচ্ছা বাণীতে জানানো হয়- ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর আমীর মুফতী সৈয়দ মোহাম্মদ রেজাউল করীম (পীর সাহেব চরমোনাই) নিজ গ্রাম বরিশালের ঐতিহাসিক চরমোনাই মাদরাসা মসজিদে ঈদের জামাতে ইমামতি করবেন এবং স্বাস্থ্যবিধি মেনে জামাতের পর এলাকার গণ্যমান্য, দলীয় নেতাকর্মী ও বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গের সাথে শুভেচ্ছা বিনিময় করবেন।

#আরআর/পাবলিক ভয়েস

মন্তব্য করুন