বাসা ভাড়া ও বাড়িওয়ালাদের সরকারি বিল মওকুফের দাবিতে মানববন্ধন

করোনাভাইরাস পরিস্থিতি

প্রকাশিত: ৬:২৯ অপরাহ্ণ, মে ১৮, ২০২০

করোনা পরিস্থিতি সৃষ্ট সংকটে প্রাইভেট মাদরাসা সমূহের বাড়ি ভাড়া মওকুফ সুদমুক্ত প্রণোদনার দাবিতে জাতীয় প্রেসক্লাবে মানববন্ধন করেছে ‘প্রাইভেট মাদরাসা কল্যাণ ফোরাম’।

মাববন্ধনে বক্তারা বাড়ি ভাড়া মওকুফ, সুদমুক্ত প্রণোদনা এবং বাড়িওয়ালাদের সুবিধার্থে  গ্যাস বিল ও বিদ্যুৎ বিল মওকুফের দাবি জানান।

বক্তারা বলেন, এই মূহুর্তে প্রত্যেকেই সংকটকালীন সময় পার করছে। বিশেষ করে অন্যান্যদের মতো ভাড়ায় চালিত প্রাইভেট মাদরাসাসমূহের পরিচালকগণ চরম বিপাকে পড়েছেন। মাদরাসা বন্ধ থাকায় বাড়ি ভাড়া এবং শিক্ষকদের বেতন দিতে পারছেন না। এমত অবস্থায় আমরা দাবি করছি বাড়ি মওকুফ এবং সুদমুক্ত প্রণোদনা দেয়া হোক।

সেই সাথে বক্তারা আরো বলেন, এখন শুধুমাত্র ভাড়াটিয়ারাই বিপদে নয়। ঠিকমতো ভাড়া না পাওয়ায় অনেক বাড়িওয়ালাও বিপাকে পড়ছেন। আমরা সরকারে কাছে আহ্বান করবো যাতে, অন্তত ৬ মাসের জন্য বাড়িওয়ালাদের গ্যাস বিল, বিদ্যুত বিল ও পানি বিল মওকুফসহ অন্যান্য সুবিধা দেয়া হয়।

আজ সোমবার (১৮ মে) দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে আয়োজিত মানববন্ধনে বক্তারা এসব কথা বলেন।

এসময় ‘প্রাইভেট মাদরাসা কল্যাণ ফোরাম’র আহ্বায়ক মুফতী মানসুর আহমাদ সাকী বলেন, উদ্ভূত পরিস্থিতিতে সরকারি নির্দেশনায় এদেশের সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানসহ ভাড়া বাসায় পরিচালিত প্রাইভেট মাদরাসাসমূহ প্রায় ২মাস যাবৎ বন্ধ রয়েছে। যার মৌলিক আয়ের উৎস হলো ছাত্রদের মাসিক প্রদেয়।

এমতাবস্থায় কিছু বাড়ির মালিকরাও বাসা ভাড়া দিতে চাপ দিচ্ছেন। অনেকে বাসায় তালা মেরে দিচ্ছেন। অন্যদিকে মাদরাসাসমূহ বন্ধ থাকায় শিক্ষকদের বেতন দিতেও পরিচালকগণ হিমসিম খাচ্ছেন।

তিনি আরো বলেন, আন্তর্জাতিক অঙ্গনে আমাদের হাতে গড়া হাফেজগণ হিফজুল কুরআন প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করে দেশের নাম উজ্জ্বল করেছেন। নৈতিকতাসম্পন্ন নাগরিক তৈরির কারখানা হিসেবে খ্যাত এই মাদরাসাসমূহ কঠিন দুঃসময় অতিবাহিত করছে।

আমরা ‘প্রাইভেট মাদরাসা কল্যাণ ফোরাম’-এর পক্ষ থেকে প্রাইভেট মাদরাসা সমূহের বাড়ী ভাড়া মওকুফ, স্বাস্থ বিধি মেনে রমজানের পর মাদরাসা খুলে দেওয়া ও প্রাইভেট শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে সুদ মুক্ত প্রণোদনা দেওয়ার দাবী জানাচ্ছি।

আয়োজিত মানববন্ধনে আরো বক্তব্য রাখেন জাতীয় শিক্ষক ফোরাম-এর সেক্রেটারি জেনারেল এবিএম জাকারিয়া। তিনি তার বক্তব্যে দেশের সকল ইমাম, মুয়াজ্জিন ও খাদেমদের জন্য সরকারি আর্থিক বরাদ্দ নিশ্চিত করে তা সুসম বন্টনের দাবী জানান।

প্রায় ১ লক্ষ কোটি টাকার প্রণোদনা প্যাকেজ ঘোষণা করায় আয়োজিত মানববন্ধন থেকে বক্তারা সরকারকে ধন্যবাদ জানিয়ে দেশের প্রাইভেট শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানসমূহকে এই প্রণোদনা প্যাকেজের আওতায় নিয়ে আসার দাবী জানান।

মানববন্ধনে অন্যান্যদের মধ্যে আরো বক্তব্য রাখেন, সংগঠনের সদস্য সচিব মুফতী আব্দুর রহীম আল হাবীবী, সদস্য (দফতর) মাওলানা মাহমুদুল হাসান, হাফেজ ক্বারী আরিফ বিল্লাহ, হাফেজ মাও. সালাউদ্দিন, মাওলানা আলী আকবর, মাওলানা আবুল খায়ের, মুফতী এইচ এম আবু বকর প্রমুখ।

/এসএস

মন্তব্য করুন