মঙ্গলবার: মৃতের সংখ্যা বেড়ে ২৫০: আজ আক্রান্ত ৯৬৯জন, মৃত্যু ১১!

করোনাভাইরাস পরিস্থিতি

প্রকাশিত: ২:৪৭ অপরাহ্ণ, মে ১২, ২০২০

মহামারী করোনাভাইরাসে আজ মঙ্গলবারও (১২ মে) দেশে নতুন করে ১১ জনের মৃত্যু হয়েছে। শনাক্ত হয়েছেন ৯৬৯জন। এ নিয়ে দেশে মোট মৃত্যু হলো ২৫০ জনের এবং মোট আক্রান্ত হয়েছেন ১৬ হাজার ৬৬০জন।

মৃতদের মধ্যে ৭জন পুরুষ এবং ৪জন মহিলা। এরমধ্যে ঢাকা সিটির মধ্যেই রয়েছে ৪জন। বাকীরা নারায়ণগঞ্জ, নরসিংদী ও অন্যন্যা এলাকার।

আজ মঙ্গলবার (১২ মে) দুপুরে সংবাদ বুলেটিনের নিয়মিত ব্রিফিংয়ে এসব তথ্য জানিয়েছেন আইইডিসিআর এর অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা।

করোনা পরীক্ষায় নতুন যুক্ত হওয়া নোয়াখালী আব্দুল মালেক উকিল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালসহ আজকে ৩৮টি ল্যাবের তথ্য তুলে ধরা হয়েছে। আজকে নতুন করে সংযুক্ত হয়েছে নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়।

ডা. নাসিমা সুলতানা জানান, গত ২৪ ঘন্টায় দেশে সুস্থ হয়েছেন ২৪৫জন এনিয়ে মোট সুস্থ হয়েছেন ৩১৪৭জন। বর্তমানে আইসোলেশনে আছেন ২৩৬১জন, আইসোলেশন থেকে ছাড়া পেয়েছেন ১২৫৬জন।

এছাড়া গত ২৪ ঘন্টায় মোট নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছিলো ৬৮৪৫টি এবং নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ৬৭৭৩টি। এ নিয়ে দেশে মোট নমুনা পরীক্ষা করা হলো ১ লাখ ৩৬ হাজার ৬৩৮টি।

বাংলাদেশে গত ৮ ই মার্চ করোনাভাইরাস প্রথম ধরা পড়ে। এরপর হুহু করে বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা। গত এক সপ্তাহ ধরে এই আক্রান্তের সংখ্যা ৫শ থেকে ৭শ এর মধ্যে উঠানামা করছে। আজ রোববার তা ৮শ ছাড়ালো। আজকে মৃতের সংখ্যাও সর্বোচ্চ।

করোনাভাইরাসে বিশ্বব্যাপী মৃতের সংখ্যা এই মূহুর্তে তিন লাখের কাছাকাছি। প্রতিমূহুর্ত বাড়ছে মৃতের সংখ্যা। ২ লক্ষ ৮৭ হাজারেরও বেশি মানুষ মারা গেছে এখন পর্যন্ত। এরমধ্যে শুধুমাত্র আমেরিকাতেই ৮১ হাজার ছাড়িয়েছে মৃতের সংখ্যা।

বাংলাদেশেও প্রতিদিন বাড়ছে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা। বিশেষ করে পরীক্ষা যতো বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যাও বাড়ছে হু হু করে। বাড়ছে ঝুঁকি।

  • করোনাভারাসের নিয়মিত আপডেট প্রকাশ করছে যুক্তরাষ্ট্রের জন হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয় ও চীনের জাতীয় স্বাস্থ্য কমিশন।

সম্মিলিত সংকলিত সর্বশেষ তথ্য অনুসারে করোনাভাইরাসে সর্বশেষ আজ (মঙ্গলবার ১২ মে) দুপুর আড়াইটা পর্যন্ত বিশ্বব্যাপী ৪২ লাখ ৬৮ হাজার ৪৯৬জন মানুষ আক্রান্ত হয়েছেন। মৃত্যু হয়েছে ২ লাখ ৮৭ হাজার ৪৬৩জনের। এছাড়া সুস্থ হয়েছে ফিরেছেন ১৫ লাখ ৩৩ হাজার ৭০১জন। এতিকে আক্রান্তের দিক থেকে ইতালিকে ছাড়িয়ে গেছে রাশিয়া।

এরমধ্যে শুধুমাত্র আমেরিকাতেই ১৩ লাখ ৮৫ হাজার ৮৩৪জন আক্রান্ত হয়েছেন। মারা গেছেন ৮১ হাজার ৭৯৫জন এবং সুস্থ হয়েছেন ২ লাখ ৬২ হাজার ২২৫জন।

এদিকে বরাবরের মতোই ইতালিকে ছাপিয়ে মৃতের সংখ্যায় দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে যুক্তরাজ্য। আজ মঙ্গলবার ব্রিটেনে মৃত্যের সংখ্যা ৩২ হাজার ৬৫জন। দেশটিতে আক্রান্ত হয়েছেন ২ লাখ ২৩ হাজার ৬০জন। এছাড়া সুস্থ হয়েছেন মাত্র ৩৪৪ জন।

অন্যদিকে ইতালিতে মৃত্যুবরণ করেছেন ৩০ হাজার ৭৩৯জন। দেশটিতে আজকে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ২ লাখ ১৯ হাজার ৮১৪জন। এছাড়া সুস্থ হয়েছেন ১ লাখ ৬ হাজার ৫৮৭জন।

এদিকে এখনো পর্যন্ত আক্রান্তের দিক থেকে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ সংখ্যা স্পেনে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ২ লাখ ৬৮ হাজার ১৪৩জন। দেশটিতে মৃত্যুবরণ করেছেন চতুর্থ সর্বোচ্চ ২৬ হাজার ৭৪৪জন এবং সুস্থ হয়ে ফিরেছেন ১ লাখ ৭৭ হাজার ৮৪৬জন।

এরপরই পঞ্চম সর্বোচ্চ ২৬ হাজার ৬৪৩জন মারা গেছে ফ্রান্সে। দেশটিতে আক্রান্ত হয়েছে ১ লাখ ৭৭ হাজার ৪২৩জন। সুস্থ হয়ে ফিরেছেন ৫৬ হাজার ৭২৪জন।

এছাড়াও জার্মানি ও রাশিয়ায় যথাক্রমে ১ লাখ ৭২ হাজার ৫৭৬জন এবং ২ লাখ ৩২ হাজার ২৪৩জন লোক আক্রান্ত হয়েছেন। এছাড়া মৃত্যুবরণ করেছে যথাক্রমে জার্মানিতে ৭ হাজার ৬৬১জন ও রাশিয়ায় ২ হাজার ১১৬জন।

এদিকে লকডাউন পরিস্থিতিতে অনলাইনে সীমিত পরিসরে আদালতের কার্যক্রম পরিচালনার ঘোষণার পর আজ প্রথম একটি আদেশ এসেছে সুপ্রিমকোর্ট থেকে।

হাইকোর্টের বিটারপতি বিচারপতি ওবায়দুল হাসান এক রিটের প্রেক্ষিতে আজ মঙ্গলবার (১২ মে) চট্টগ্রামের হালদা নদীর ডলফিন রক্ষার নির্দেশ দিয়েছেন।

ভার্চুয়াল পদ্ধতিতে শুনানি নিয়ে হাইকোর্টের প্রথম আদেশ এটি। আদেশে আগামী ৭২ ঘণ্টার মধ্যে পদক্ষেপ জানাতে বলা হয়েছে।

গত পরশু রোবাবর (১০ মে) ইংরেজী দৈনিক দ্য ডেইলি স্টার এর অনলাইন বাংলা ভার্সনে ‘হালদার বিপন্ন ডলফিন, দেখার কেউ নেই!’ শিরোনমে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ হয়। প্রতিবেদনে হালদা নদীতে ডলফিন মাছের দুরবস্থার কথা তুলে ধরে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের নির্লিপ্ততার কথা বলা হয়।

এই প্রতিবেদনের আলোকে গতকাল সোমবার (৯ মে) হালদা নদীতে অবাধে ডলফিন হত্যা বন্ধের নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে রিট আবেদন করা হয়। সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী অ্যাডভোকেট মোঃ আব্দুল কাইয়ুম জনস্বার্থে এ রিট আবেদন করেন।

সোমবার: আক্রান্তের সংখ্যা ১ হাজার ছাড়িয়ে নতুন সর্বোচ্চ রেকর্ড, মৃত্যু ১১

এসএস/পাবলিকভয়েস/

মন্তব্য করুন