লকডাউনে নারায়ণগঞ্জ

প্রকাশিত: ১১:২৩ পূর্বাহ্ণ, এপ্রিল ৬, ২০২০

করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যায় ঢাকার পরেই নারায়ণগঞ্জের অবস্থান, এখন পর্যন্ত ১১ জন আক্রান্ত হয়েছেন । এর মধ্যে মৃত্যুবরণ করেছেন ২ জন। এমন পরিস্থিতিতে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন এলাকা ছাড়াও সদর ও বন্দর উপজেলাকে লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে। দেশে করোনাভাইরাস সংক্রমণের পর এটাই সবচেয়ে বড় এলাকাজুড়ে লকডাউনের ঘোষণা।

উদ্ভূত পরিস্থিতিতে গতকাল রোববার রাত ১১টার দিকে জেলা প্রশাসক জসিমউদ্দিনের নেতৃত্বে স্থানীয় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা বৈঠকে বসেন। সেখানেই লকডাউনের সিদ্ধান্ত হয়। এই ঘোষণার ফলে আজ সোমবার থেকে পরবর্তী সিদ্ধান্ত না দেওয়ার আগ পর্যন্ত নারায়ণগঞ্জের ওই নির্দিষ্ট এলাকার কেউ একান্ত জরুরি প্রয়োজন ছাড়া ঘরের বাইরে বের হতে পারবে না।

এর আগে করোনাভাইরাসের ভয়াবহতা বিবেচনায় পুরো নারায়ণগঞ্জকে লকডাউন করার দাবি উঠছিল বিভিন্ন মহল থেকে। নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের মেয়র সেলিনা হায়াত আইভী প্রধানমন্ত্রীর কাছে কারফিউ জারি করার অনুরোধ জানিয়েছিলেন। এছাড়া পুরো জেলাকে লকডাউন করার দাবি জানিয়ে আসছিলেন স্থানীয় সংসদ সদস্য শামীম ওসমান।

লকডাউনের সিদ্ধান্ত হওয়ার পর নারায়ণগঞ্জের পুলিশ সুপার জায়েদুল আলম জানান, করোনাভাইরাস প্রতিরোধে আমরা জিরো টলারেন্স নীতি গ্রহণ করেছি। অতীব জরুরি প্রয়োজন ছাড়া বাসা-বাড়ি থেকে কাউকে বের হতে দেওয়া হবে না। নারায়ণগঞ্জে ইনপুট-আউটপুট বন্ধ থাকবে। কঠোর অবস্থানে যাওয়া ছাড়া আমাদের হাতে আর কোনো বিকল্প নেই।

এমএম/পাবলিকভয়েস

মন্তব্য করুন