ইতালি: বৃহস্পতিবার মৃত্যু ৭৬০, আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা কমতির দিকে

করোনাভাইরাস পরিস্থিতি

প্রকাশিত: ১:২৮ পূর্বাহ্ণ, এপ্রিল ৩, ২০২০
ছবি: দ্য গার্ডিয়ান

পাবলিক ভয়েস: মহামারী করোনাভাইরাসে বৃহস্পতিবার ইতালিতে ৭৬০ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। এদিন আক্রান্ত হয়েছেন ৪০৫৩জন।

এ নিয়ে মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়ালো ১৩৯১৫ জনে এবং মোট আক্রান্তের সংখ্যা হয়েছে ৮৯৭৪৩ জন।

বুধবার সন্ধা থেকে বৃহস্পতিবার সন্ধা পর্যন্ত ২৪ ঘন্টায় সর্বশেষ তথ্য নিয়ে প্রতিদিনের সংবাদ সম্মেলনে স্থানীয় সময় সন্ধা ৬টায় (বাংলাদেশ সময় রাত ১১টা) এ পরিসংখ্যান তুলে ধরেছে দেশটির নাগরিক সুরক্ষা বিভাগ।

সংবাদ সম্মেলনে বিস্তারিত তুলে ধরেন দেশটির নাগরিক সুরক্ষা বিভাগের প্রধার অ্যাঞ্জেলো বোরেলি। খবর ইউরোপীয় ইংরেজী দৈনিক ‘দ্য লোকাল ইতালি’।

অন্যদিকে নিয়মিত আপডেট হিসাব অনুযায়ী প্রাদুর্ভাব শুরুর পর থেকে ইতালিতে সুস্থ, অসুস্থ, মৃত সব মিলিয়ে মোট ১১৩৮৫০ জনের শরীরে করোনা চিহ্নিত হয়েছে।

  • তবে সুরক্ষা বিভাগের বরাতে বৃহস্পতিবার সন্ধায় ‘দ্যা লোকাল ইতালি’ জানিয়েছে এই সংখ্যাটি  হবে ১১৪,২২২ জন। অন্যদিকে বৃহস্পতিবার দেশটিতে ১৮২৭৮ জন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। 

নিয়মিত সংবাদ সম্মেলনে হাসপাতালে ভর্তি হওয়া মানুষের সংখ্যা হ্রাস পেয়েছে উল্লেখ্য করে দেশটির নাগরিক সুরক্ষা বিভাগের প্রধান অ্যাঞ্জেলো বোরেলি বলেছেন, সম্প্রতি অসুস্থ হয়ে পড়ার পরে করোনাভাইরাসের পরীক্ষায় নেতিবাচক রিপোর্ট পেয়েছেন।

বোরেলি জানিয়েছেন, সংক্রামিত মোট জনগণের ১ শতাংশ লোক কোনো লক্ষণ ছাড়াই বা হালকা লক্ষণসহ হোম কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন এমন একটি সংখ্যা শতকরা হারে বেড়েছে।

এদিকে সপ্তাহ জুড়ে ধারাবাহিতকতায় ইতালির সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্থ এলাকা লম্বার্ডি অঞ্চলে বৃহস্পতিবারেও সংক্রমণের হার কমেছে। বুধবার ১৫২৯ এর তুলনায় বৃহস্পতিবার ১,২৯২ জন আক্রান্ত হয়েছেন।

মৃত্যুর সংখ্যা কয়েক দিনের জন্য নাটকীয়ভাবে ওঠানামা করে উঠেনি, যদিও বুধবার  প্রাণহানির তথ্যের নির্ভুলতা নিয়ে কিছু  সন্দেহ উত্থাপিত হয়েছিল। এ নিয়ে দেশটির অনেক স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা পরিসংখ্যান নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করেন।

এ ব্যাপারে সতত্য স্বীকার করে বোরেলি বলেন, হাসপাতালের বাইরের কোভিড -১৯ সম্পর্কিত কারণে মারা যাওয়া লোকদের হিসাব অনেক সময় গণনা করা সম্ভব হয় না। এজন্য পরিসংখ্যানে সামান্য এদিক-সেদিক হতে পারে।

এদিকে বুধবার দেশটির প্রধানমন্ত্রী জিউসেপ্পে কন্টে- ১২ মার্চ থেকে চলমান লকডাউনের সময়সীমা বাড়িয়ে ১৩ এপ্রিল পর্যন্ত লকডাউন চলার আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দিয়েছেন।

কন্টে বলেন, গত এক সপ্তাহ ধরে আমাদের মৃত্যু সংখ্যা কমছে। তবে আমরা এখনো এই লড়াইয়ের শেষ থেকে অনেক দূরে রয়েছি এবং এজন্য এই লড়াই চালিয়ে যেতে লকডাউনের সময় ১৩ এপ্রিল পর্যন্ত বৃদ্ধি করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।

উল্লেখ্য, গত রোববার ইতালির আঞ্চলিক বিষয়ক মন্ত্রী ফ্রান্সেস্কো বোকসিয়া দেশটির স্কাই টিজি 24 টেলিভিশনে এক সাক্ষাতকারে বলেছেন, অনিবার্যভাবেই লকডাউনের সময় বাড়বে। আগামী দিনে মন্ত্রীসভার বৈঠকে এটি চূড়ান্ত হবে।

ওইদিন বিশেষ সূত্রের বরাতে ‘দ্য লোকাল ইতালি’ জানিয়েছিলো আরো প্রায় ৪ মাস পর্যন্ত লকডাউন সময় বাড়বে। জাতীয় স্বাস্থ্য জরুরী অবস্থার বিদ্যমান অবস্থায় প্রধানমন্ত্রী জিউসেপ্পে কন্টে ইতোমধ্যে আগামী ৩১ জুলাই পর্যন্ত লকডাউন বাড়নোর সময় অনুমোদন করেছেন।

ইতালি: বুধবার মৃতের সংখ্যা ৭২৭, মোট মৃত্যু ছাড়িয়েছে ১৩ হাজার

ইতালি: মঙ্গলবার মৃত্যু ৮৩৭, মোট মৃত্যু ছাড়িয়েছে ১২ হাজার

ইতালি: সোমবার মৃতের সংখ্যা ৮১২, মোট মৃত্যু ছাড়িয়েছে ১১ হাজার

ইতালি: রোববার মৃত বেড়ে ১০৭৭৯: লকডাউন বৃদ্ধি ৩১ জুলাই পর্যন্ত

ইতালি: মৃতের সংখ্যা পেরিয়েছে ১০ হাজার, শনিবার মৃত্যু ৮০৯ জন

ইতালিতে একদিনে সর্বোচ্চ মৃত্যুর নতুন রেকর্ড, প্রাণহানি ৯৬৯ জনের

ইউরোপীয় দৈনিক ‘দ্য লোকাল  ইতালি’ অবলম্বনে শহনূর শাহীন

/এসএস

মন্তব্য করুন