সাঈদীকে মুক্তি দিলে দেশে অরাজকতা সৃষ্টি হবে : আলেম মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্ম ফোরাম

প্রকাশিত: ৭:৫৭ অপরাহ্ণ, মার্চ ২৮, ২০২০

যুদ্ধাপরাধের মামলায় দণ্ডিত হয়ে জেলখানায় বন্দি থাকা বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর নায়েবে আমীর, দেশের জনপ্রিয় ইসলামী আলোচক ‘আল্লামা দেলোয়ার হোসাইন সাঈদীকে মুক্তি দিলে দেশে অরাজকতা সৃষ্টি হবে বলে মন্তব্য করেছেন আলেম মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্ম ফোরাম নামে একটি সংগঠন।

আজ ২৮ মার্চ সংগঠনের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক হোসাইন আহমাদ স্বাক্ষরিত গণমাধ্যমে প্রেরিত এক বিবৃতিতে তারা এই দাবি করেন।

সংগঠনের পক্ষ থেকে দাবি করে বলা হয়েছে, ‘আলেম মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্ম ফোরাম’ ইতিমধ্যে দেশের প্রায় একশজন বরেণ্য আলেমের মতামত সংগ্রহ করেছে। সবাই ঐক্যমত পোষণ করেছেন যে, এই মুহুর্তে কিছুতেই সাজাপ্রাপ্ত যুদ্ধাপরাধী দেলোয়ার হুসাইন সাঈদীর সাজা স্থগিত করা যাবে না। তাকে মুক্তি দিলে দেশে আবার অরাজকতা সৃষ্টি হবে ও ধর্মীয় সম্প্রীতি বিনষ্ট হবে। কাজেই তার সাজা বহাল রাখা হোক।

বিবৃতিতে আরো বলা হয়েছে, একটি স্বাধীন, সার্বভৌম দেশে মানবতাবিরোধী যুদ্ধাপরাধের দায়ে দণ্ডিত কোন ব্যক্তির মুক্তির দাবী তোলা মানে মানবতাবিরোধী অপরাধের সমর্থন দেয়া, যা একটি গুরুতর অপরাধ।

সংগঠনের পক্ষ থেকে ক্ষোভ প্রকাশ করে বলা হয়, আমরা অত্যন্ত ক্ষোভ ও দুঃখের সাথে লক্ষ্য যে, বিশ্বব্যাপী যখন ছড়িয়ে পড়েছে প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাস, সারা দেশ যখন ব্যস্ত এই মহাবিপদ মোকাবেলায়, ঠিক সেই মূহুর্তে বাংলাদেশে ইসলামদ্রোহী ও আদালতের পর্যবেক্ষণে যুদ্ধাপরাধী দল জামায়াতে ইসলামী মাথাচাড়া দিয়ে উঠতে মরিয়া হয়ে উঠেছে। জামায়াতের দোসর কিছু নামধারী আলেম দেশের এই সংকটময় পরিস্থিতিতে, মানবতাবিরোধী যুদ্ধাপরাধের দায়ে দণ্ডিত অপরাধীদের মুক্তির দাবী তুলে ঘোলাপানিতে মাছ শিকারের পাঁয়তারা করছে।

সরকারের আবেদন প্রকাশ করে সংগঠনটি বিবৃতিতে লিখেছে, সরকারের কাছে আমাদের আকুল আবেদন, দেশের এই সংকটময় মুহূর্তে স্বাধীনতা বিরোধী যুদ্ধাপরাধী জামায়াত ও তাদের আলেম নামধারী দোসরদের সকল ষড়যন্ত্রের ব্যাপারে সজাগ দৃষ্টি রাখুন। তাদের শাস্তির আওতায় আনুন। আপনাদের দৃষ্টি এড়িয়ে কেউ যেন দেশে অরাজকতা তৈরী না করতে পারে।

‘আলেম মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্ম ফোরামের পক্ষ থেকে দেশবাসীর কাছে অনুরোধ প্রকাশ করে বলা হয়, ‘দেশবাসীর প্রতি আমাদের অনুরোধ, করোনা ভাইরাসের আক্রমণে বিপর্যস্ত এই দিনগুলোতে সবাই সতর্ক থাকুন। কেউ যেন ঘোলাপানিতে মাছ শিকারের অপচেষ্টা না চালায় সে ব্যাপারে সজাগ থাকুন। গুজব প্রতিরোধে সচেষ্ট থাকুন। প্রাকৃতিক বা মানবসৃষ্ট, এই মুহুর্তে সবধরণের দুর্যোগ থেকে দেশ ও দেশের মানুষকে রক্ষা করাই হোক আমাদের মূলমন্ত্র।

উল্যেখ্য : ‘আলেম মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্ম ফোরাম’ বাংলাদেশের প্রতিথযশা আলেম ও শোলাকিয়া ঈদগাহ ময়দানের প্রধান ইমাম ও মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক আল্লামা ফরিদ উদ্দিন মাসউদের তত্বাবধানে পরিচালিত মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্মের একটি সংগঠন। সংগঠনের সভাপতি মাওলানা সদরুদ্দীন মাকনুন ও সেক্রেটারী রাশিদুল আলম মোল্লা।

প্রসঙ্গত : ১৯৭১ সালে বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধ চলাকালীন সময়ে রাজাকার বাহিনীর সদস্য হিসাবে পাকিস্তানী সেনাবাহিনীর সঙ্গে যুক্ত থেকে হত্যার মতো মানবতাবিরোধী কার্যক্রমে সাহায্য করার অভিযোগ এনে দল বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর নায়েবে-আমির বা ভাইস প্রেসিডেন্ট আল্লামা দেলোয়ার হোসাইন সাঈদীকে আমৃত্যু কারাদণ্ড দেওয়া হয়।

সংশ্লিষ্ট খবর :

জামায়াত-শিবির আমাকে গুলি করেছিলো, আমি সাঈদীর মুক্তি চাইনি : মুহিববুল্লাহ বাবুনগরী

আল্লামা সাঈদীর মুক্তি চাইলেন মাওলানা মামুনুল হক (ভিডিও)

মাওলানা সাঈদীকে নিয়ে গোলাম মাওলা রনির আবেগঘন স্ট্যাটাস

মন্তব্য করুন