আল্লামা সাঈদীর মুক্তি চাইলেন মাওলানা মামুনুল হক (ভিডিও)

প্রকাশিত: ৬:৪০ অপরাহ্ণ, মার্চ ২৬, ২০২০

কারাবন্দি জামায়াত নেতা আল্লামা দেলোয়ার হোসেন সাঈদীর মুক্তি চাইলেন শায়খুল হাদীস আল্লামা মামুনুল হক। করোনাভাইরাস পরিস্থিতি বিবেচনায় আল্লামা সাঈদীকে মুক্তি দিতে সরকারের প্রতি তিনি আহ্বান জানিয়েছেন।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে নিজের ব্যক্তিগত পেজে এক লাইভ ভিডিও বার্তায় তিনি এ আহ্বান জানিয়েছেন।

এছাড়াও লাইভে মাওলানা মামুনুল হক করোনাভাইরাস নিয়ে দেশবাসীকে সচেতন হওয়া এবং সতর্কতা অবলম্বনের আহ্বান জানান। রোগ সংক্রমন সংক্রান্ত হাদীসের উদ্ধৃতি দিয়ে যারা বলেন, ইসলামে সংক্রমণ বলতে কোনো রোগ নেই, তাদেরকে উদ্দেশ্য করে মাওলানা মামুনুল হক বলেন, মূলত এই হাদীসের অর্থ হলো কেউ যেন অন্য কারো নিকট রোগের সংক্রমণ না ঘটায়।

অর্থাৎ কারো যদি রোগ সংক্রমণের ভাইরাস থাকে সে যেন অন্য কারো সেই রোগে সংক্রমণের কারণ না হয়। কেননা, আলোচিত এই হাদীসটিরই শেষের অংশে কুষ্ঠ রোগ থেকে পলায়ন করার কথা বলা হয়েছে, যেমনিভাবে সিংহ দেখলে কেউ পলায়ন করে থাকে।

মাওলানা মামুনুল হক বলেছেন, খালেদা জিয়াকে মুক্তি দিয়ে সরকার উদারতার পরিচয় দিয়েছে। সরকার ও বিরোধীদলের মধ্যে  েয যুদ্ধাংদেহী সাংঘর্ষিক রুপ আমরা দেখি খালেদা জিয়ার মুক্তির মাধ্যমে তার একটা ইতিবাচক দিক দেখতে পেলাম।

বিরোধী দলীয় নেত্রীকে মুক্তি দিয়ে বর্তমান সরকার প্রধান প্রধনামন্ত্রী শেখ হাসিনা উদারতা ও মানবিকতার পরিচয় দিয়েছেন। তার এই সিদ্ধান্ত অবশ্যই প্রশংসাযোগ্য। এবং দেশবাসী এতে আনন্দিত। প্রধানমন্ত্রীর এ মানবিক আচরণ বাংলাদেশের রাজনীতিতে সহনীয় পরিবেশ তৈরিতে সহায়ক হবে।

মাওলানা মামুনুল হক আরো বলেন, আমরা অনুরোধ করবো- এই ধরণের জরুরি পরিস্থিতিতে দেশ একটা ঐক্যবদ্ধ জায়গায় আসাটা অতিব জরুরি। এই অবস্থা থেকে উত্তরণের জন্য গোটা জাতির মধ্যে ঐক্য এবং সংহতি প্রয়োজন্য।

এজন্য, কারাগারে বহু মানুষ রয়েছেন যারা মূলত অন্যায়ের স্বীকার, কেউ কেউ অনেক দূর্ভোগের স্বীকার। সেই মানুষগুলোকেও যদি এভাবে মুক্ত করা হয়। তাহলে এই ধরণের কারামুক্তি প্রদান; এটিও জাতির জন্য আল্লাহ তাআলার পক্ষ থেকে রহমতের কারণ হবে।

আমরা জানি বিভিন্ন জাতীয় দিবসে বিভিন্ন উপলক্ষ্যে কারামুক্তি দেয়া হয়, তণ্ড মওকুফ করা হয়। আমরা সরকার এবং রাষ্ট্রকে বলবো, এমন উদ্যোগ যেন বর্তমান করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে বেশি বেশি নেওয়া হয়।

বিশেষ করে বাংলাদেশের প্রখ্যাত আলেমে দীন মাওলানা দেলোয়ার হোসেন সাঈদী সাহেবের ব্যাপারেও আমরা অনুরোধ করবো। তিনি বয়োবৃদ্ধ, ‍অসুস্থ। আমরা যতটুকু জানতে পেরেছি তিনি একা চলাচল করতে পারেন না। বার্ধক্যের এই সময়ে পরিবারের সাথে থেকে পরিবারের সেবাটুকু পান তাহলে হয়তো একটু ভালো থাকতে পারবেন।

কোরআনের একজন ভাষ্যকারকে যদি আমার দেশ,আমার রাষ্ট্র, আমাদের প্রধানমন্ত্রী সম্মান জানান, তাকে যদি মুক্তির ব্যবস্থা করেন তাহলে আমরা আশা করবো আমাদের ওপর আল্লাহ তাআলার রহমতের এটিও একটি কারণ হবে।

/এসএস

মন্তব্য করুন