‘মানুষ হত্যার জন্য আমাদের বোমা আছে কিন্তু মানুষ বাঁচানোর জন্য মাস্ক নেই’

প্রকাশিত: ১২:১৪ অপরাহ্ণ, মার্চ ২৪, ২০২০

আমেরিকার একটি নিউজ ওয়েব পোর্টাল লিখেছে, অন্য দেশে হামলা চালানোর জন্য আমাদের দেশের সরকারের কাছে নানা ধরনের বোমা আছে কিন্তু নিজের জনগণকে রক্ষা করার জন্য তার কাছে পর্যাপ্ত মাস্ক নেই।

কমন ড্রিমস (Common Dreams) নামের ওই ওয়েব পোর্টাল লিখেছে, “প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও তার লোকজন ইরানকে যুদ্ধে উসকানি দেয়া এবং আসন্ন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের জনমত নিয়ে গবেষণা করতে এত বেশি ব্যস্ত ছিলেন যে, কখন যে আমেরিকায় করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়েছে তারা তা টেরও পাননি। অথচ চীন থেকে বিভিন্ন দেশ হয়ে আমেরিকা পর্যন্ত এই ভাইরাস আসার আগে তাদের হাতে যথেষ্ট সময় ছিল।

কমন ড্রিমস আরো লিখেছে, “এ কারণে মহামারী আকারে ছড়িয়ে পড়া এ ভাইরাসকেও ট্রাম্প রাজনৈতিক মাপকাঠি দিয়ে পরিমাপ করেছেন। প্রথমে তিনি করোনাভাইরাসকে গুরুত্ব না দিয়ে আমেরিকায় এটির ছড়িয়ে পড়ার খবরকে ‘ডেমোক্র্যাটদের প্রতারণা’ বলে উল্লেখ করেন। এরপর তিনি যখন পরিস্থিতির ভয়াবহতা উপলব্ধি করেন তখন অনেক দেরি হয়ে গেছে।”

মার্কিন ওয়েব পোর্টালটির বিশ্লেষণে আরো বলা হয়েছে, “ততদিনে আমেরিকার অবস্থা এতটা নাজুক হয়ে গেছে যে, করোনাভাইরাস বিরোধী লড়াইয়ের সামনের সারির যোদ্ধা- নার্সরা মাস্কের পরিবর্তে ওড়না দিয়ে নাক-মুখ বেধে রোগীর সেবায় নিয়োজ হয়েছেন। আমেরিকায় যখন সামান্য মাস্কের এত অভাব তখন আফগানিস্তান, পাকিস্তান, ইরাক, ইয়েমেন, সোমালিয়া ও পশ্চিম আফ্রিকাসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশের মানুষ হত্যার জন্য আমাদের অস্ত্রাগারের রয়েছে ৫০০ পাউন্ড ও এক হাজার পাউন্ডের অসংখ্য বোমা।”

কমন ড্রিমস আরো লিখেছে, “করোনা মোকাবিলায় আমেরিকার অবস্থা এখন এতটাই শোচনীয় যে, প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প একবার ব্যবহারের জন্য তৈরি করা মাস্ক বারবার ব্যবহার করার জন্য হাসপাতালগুলোকে নির্দেশ দিয়েছেন।পার্সটুডে।

এমএম/পাবলিকভয়েস

মন্তব্য করুন