সৌদি আরবে কারফিউ

করোনাভাইরাস

প্রকাশিত: ১২:১৭ অপরাহ্ণ, মার্চ ২৩, ২০২০

মহামারী করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব রোধে সৌদি আরবে কারফিউ জারির নির্দেশ দিয়েছেন দেশটির বাদশাহ সালমান বিন আবদুল আজিজ। আজ সোমবার স্থানীয় সময় সন্ধ্যা থেকে এ ঘোষণা কার্যকর করা হবে। খবর আরব নিউজ ও সৌদি গেজেট।

দেশটির রাজকীয় আদালতের একটি বিবৃতি সৌদি সংবাদ সংস্থায় প্রকাশিত হয়েছে। খবরে বলা হয়েছে, সন্ধ্যা সাতটা থেকে ভোর ছয়টা পর্যন্ত এই কারফিউ কার্যকর হবে।

হিজরি বর্ষপঞ্জির ১৪৪১ সালের ২৮ রজব থেকে আগামী ২১ দিন এই কারফিউ কার্যকর থাকবে। অর্থাৎ গ্রিগরি ক্যালেন্ডার অনুসারে ২৩ মার্চ থেকে যা কার্যকর থাকবে।

রোববার সৌদিতে নতুন করে ১১৯ করোনাভাইরাস রোগী শনাক্ত হয়েছেন। এ নিয়ে উপসাগরীয় দেশটিতে সর্বমোট ৫১১ জনের শরীরে প্রাণঘাতী এই ভাইরাস ধরা পড়ে।

নিজেদের নিরাপত্তার জন্যই কারফিউ চলাকালে নাগরিক ও বাসিন্দাদের ঘরে অবস্থান করতে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

কারফিউর নির্দেশ বাস্তবায়ন করতে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেবে বলেও বিবৃতিতে জানানো হয়। এতে সব সামরিক ও বেসামরিক কর্তৃপক্ষকে সহায়তা করতেও বলা হয়েছে।

তবে কয়েকটি খাতের শ্রমিকরা এই কারফিউর বিধিনিষেধের বাইরে থাকবেন। নিবৃত্তিমূলক সময়েও যেসব সরকারি ও বেসরকারি খাতের কাজ অব্যাহত চালিয়ে যেতে হবে, সেই সব খাতের শ্রমিকরা এই কারফিউর বাইরে থাকবেন।

উল্লেখ্য, এর আগে ২০ মার্চ শুক্রবার সকালে মসজিদে নববী ও মসজিদ আর হারামসহ সৌদি আরবের সকল মসজিদে জুমআসহ সব নামাজের জামাআত স্থগিত করা হয়। এর আগে ১৭মার্চ মঙ্গলবার সন্ধায় একবার এই ঘোষণা দেওয়া হয়েছিলো। পরে অবশ্য রাতেই হারামাইন শরীফাইনকে নিষেধাজ্ঞার বাইরে রাখা হয়। এরপর শুক্রবার আবার নতুন ঘোষণা সব মসজিদের নামাজ স্থগিত করা হয়। তবে মসজিদের দায়িত্বশীল কর্মকর্তাগণ নামাজ পড়তে পারবে।

সংশ্লিষ্ট খবর:
জুমার নামাজ বন্ধ হলো সৌদির মসজিদুল হারাম ও নববীতেও


সংশোধিত ঘোষণা: মসজিদে নববী ও হারামে নামাজ চালু থাকবে

/এসএস

মন্তব্য করুন