ভোলায় চাল-পিঁয়াজ বেশী দামে বিক্রি, ২৬ ব্যবসায়ীর ৪ লাখ টাকা জরিমানা

প্রকাশিত: ৩:৫৭ অপরাহ্ণ, মার্চ ২১, ২০২০

ভোলা প্রতিনিধি : করোনা ভাইরাসকে কেন্দ্র করে ভোলা জেলার সদর, দৌলতখান, লালমোহন ও মনপুরা উপজেলায় চাল-পেয়াজসহ নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্য অতিরিক্ত দামে বিক্রি করার অপরাধে ২৬ ব্যবসায়ীকে চার লাখ ৩৫০০ টাকা অর্থদণ্ড প্রদান কেরছে ভ্রাম্যমান আদালত।

শনিবার দিনব্যাপী জেলার বিভিন্ন উপজেলায় আলাদা আলাদা ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে ভোলা সদরের ৮ ব্যবসায়ীকে ১ লাখ ৯৭ হাজার টাকা, দৌলতখানে পাঁচ ব্যবসায়ীকে ৫১ হাজার টাকা, লালমোহনে ৭ ব্যবসায়ীকে এক লাখ ৪০ হাজার টাকা ও মনপুরা উপজেলায় ৬ ব্যবসায়ীকে ১৫ হাজার ৫০০টাকা অর্থদণ্ড প্রদান করা হয়।

শনিবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট পিয়াস চন্দ্র দাস ও নাদির হোসেন শামিম এর নেতৃত্বে একটি ভ্রাম্যমান আদালত ভোলা শহরের খালপাড় রোডে অভিযান চালায়।

এসময় অতিরিক্ত দামে চাল বিক্রির অপরাধে ব্যবসায়ী মঞ্জুর মোরশেদকে ৭০ হাজার টাকা, মো. মিজানকে ৫ হাজার টাকা, মো. ইকবাল হোসেনকে ৫ হাজার টাকা, জাহিদুল ইসলামকে ১০ হাজার টাকা, আব্দুর রাজ্জাক লাল মিয়াকে ১০ হাজার টাকা ও অতিরিক্ত দামে পিয়াজ বিক্রির অপরাধে পিঁয়াজ ব্যবসায়ী মো. জামাল হোসেনকে ৩ হাজার টাকা, মো. জুয়েলকে ২ হাজার টাকা এবং মো. বাবুলকে ২ হাজার টাকা জরিমনা প্রদান করেন।

অপরদিকে জেলার লালমোহন উপজেলায় শনিবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত লালামোহন বাজারের সদর রোডে উপজেলা নির্বাহী অফিসার হাবিবুল হাসান রুমির নেতৃত্বে ভ্রাম্যমান আদালতের একটি টিম অভিযান চালায়। এসময় অতিরিক্ত দামে চাল বিক্রির অপরাধে চাল ব্যবসায়ী মো. মনির বকসি, মো. নুরুল ইসলাম, উজ্জল চন্দ্র দাস, মো. মোফাজ্জল, মো. নুরুন্নবী ও মো. নান্নুকে ২০ হাজার টাকা করে ও মো. কামাল নামের এক মুদি ব্যবসায়ীকে ২০ টাকা জরিমানা প্রদান করা হয়।

এছাড়াও দৌলতখান উপজেলায় শুক্রবার দিবাগত রাত ৯টার দিকে উপজেলা নির্বাহী অফিসার জীতেন্দ্র কুমার নাথ এর নেতৃত্বে ভ্রাম্যমান আদালতের একটি টিম দৌলতখান বাজারে অভিযান চালায়। এসময় চাল-পেয়াজসহ নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্য সামগ্রী অতিরিক্ত দামে বিক্রি করার অপরাধে মুদি ব্যবসায়ী পরিমল চন্দ্র দে, মহিউদ্দিন, মো. ফারুককে ১০ হাজার টাকা করে ও মোসলেহউদ্দিন নামের এক চাল ব্যবসায়ীকে ২০ হাজার টাকা, আরো এক ব্যবসায়ীকে এক হাজার টাকা জরিমানা প্রদান করা হয়।

মনপুরা উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিপুল চন্দ্র দাস এর নেতৃত্বে ভ্রম্যমান আদালতের একটি টিম উপজেলার দুইটি বাজারে অভিযান চালায়। এসময় উত্তর সাকুচিয়া ইউনিয়নের বাংলাবাজার মুুদি ব্যাবসায়ী মো. হানিফকে ১ হাজার টাকা, দক্ষিন সাকুচিয়া সিরাজগঞ্জ বাজারের মুদি ব্যাবসায়ী মো. ইলিয়াছ ২ হাজার টাকা, মো. ইসমাইল হোসেনকে ১ হাজার টাকা, কোড়ালিয়া বাজারের মুদি ব্যাবসায়ী মো. নাছির জমাদারকে ১০ হাজার টাকা, আব্দুর রহিমকে ১ হাজার টাকা ও মো. মোছলেউদ্দিনকে ৫ শত টাকা জরিমানা প্রদান করা হয়।

ভোলার জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মাসুদ আলম ছিদ্দিক বলেন, করোনা ভাইরাসকে কেন্দ্র করে কোনো ব্যবসায়ী চালা-পেয়াজসহ নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্য সামগ্রী বেশী দামে বিক্রি করলে তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। বাজার নিযন্ত্রন করতে জেলা প্রশাসনের এ অভিযান অব্যাহত থাকবে বলেও জানান তিনি।

মন্তব্য করুন