মুসলিম গণহত্যায় দায়ী মোদির আগমণের প্রতিবাদে প্রবাসী ১৫০ আলেমের বিবৃতি

প্রকাশিত: ১:২৩ পূর্বাহ্ণ, মার্চ ২, ২০২০

সৈয়দ বেলালী দাম্মাম থেকে: মুজিববর্ষে বাংলাদেশে আমন্ত্রিত হয়ে আসছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তার এই আগমণকে ঘিরে বাংলাদেশে তৈরি হয়েছে ক্ষোভ-প্রতিবাদ।

সম্প্রতি দিল্লি দাঙ্গায় এ ক্ষোভ প্রকাশে সরব হয় ডান-বাম সব ঘরানার রাজনৈতিক দল ও বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ। বিদেশে অবস্থান প্রবাসী আলেমরাও এই প্রতিবাতে শামিল হয়েছেন।

বিশ্বের বিভিন্ন দেশে বসবাসরত ১৫০জন বাংলাদেশী ওলামায়ে কেরাম এক যুক্ত বিবৃতিতে নরেন্দ্র মোদিকে আমন্ত্রণ জানানোয় বিস্ময় প্রকাশ করে সরকারের প্রতি ভারতের অন্য কোনো মানবিক নেতাকে আমন্ত্রণ জানানোর দাবি জানিয়েছে।

বিবৃতিতে প্রবাসী আলেমগণ বলেন, গুজরাটের মুসলিম গণহত্যার নেতৃত্বদানকারী ও নির্মম নিষ্ঠুর নির্যাতনের ইন্ধনদাতা এবং সাম্প্রতিক দিল্লির মুসলমি হত্যাযজ্ঞের মূল হোতা, গুজরাটের কসাই খ্যাত জঘন্য পাপিষ্ঠ চরম মুসলিম বিদ্বেষী নরেন্দ্র মোদিকে মরহুম শেখ মজিবুর রহমানের জম্মশতবার্ষিকীতে আমন্ত্রণ করায় আমরা বিস্মিত ও হতবাক হয়েছি !

কারন ৯২% মুসলিম প্রধান আমাদের এই বাংলাদেশ। সেই দেশের জাতীয় নেতার জন্মশতবার্ষিকীতে একজন জঘন্য পাপিষ্ঠ মুসলিম বিদ্ধষীকে আমন্ত্রণ বাংলার তৌহিদী জনতা যেমন মানতে পারছে না, তেমনিভাবে আমরাও মানতে পারছি না।

বিবৃতিতে ওলামায় কেরাম আরো বলেন, আমরা জানি আমাদের প্রধানমন্ত্রী একজন মানবতাবাদী মানুষ, যিনি দশলক্ষ রোহিঙ্গা মুসলিমকে বাংলাদেশে আশ্রয় দিয়ে তার প্রমাণ রেখেছেন।

সেই তিনি এক জঘন্য মুসলিম বিদ্ধেষী, চরম মানবাধিকার লঙ্ঘনকারীকে কিভাবে বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীতে আমন্ত্রণ জানালেন, এটা আমাদের বোধগম্য নয়।

অন্য যেকোনো দেশের প্রধানকে দাওয়াত দেওয়া হোক কিংবা ভারতের অন্য কোনো শীর্ষস্থানীয় মানবিক নেতাকে আমন্ত্রণ করা হোক তাতে আমাদের কোনো আপত্তি নেই। কিন্ত মুসলিম হত্যাকারী, সন্ত্রাসী নরেন্দ্র মোদিকে আমন্ত্রণ জাননো এটা আমরা মুসলিম হিসেবে মেনে নিতে পারছি না।

অতএব তার আমন্ত্রণ বাতিল করার জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নিকট জোর দাবী জানাচ্ছি। অন্যথায় সর্বস্তরের তৌহিদী জনতা রাজপথে নেমে আসলে, এ নিয়ে বিশৃঙ্খল পরিস্থিতি তৈরি হলে এর দায় দায়িত্ব সরকারকেই বহন করতে হবে।

১৫০ জন প্রবাসী ওলামায় কেরামের পক্ষে বিবৃতি স্বাক্ষর করেন ১. শায়েখ মুফতী মিজানুর রহমান, সৌদিআরব, ২. মুফতী আলতাফুর রহমান গাজী,সৌদিআরব, ৩. হাফেজ মাও. বেলায়েত হোসাইন, সৌদিআরব, ৪. এইছ এম শহীদ উল্লাহ, সৌদিআরব, ৫. মুফতী জহিরুল ইসলাম, সৌদিআরব, ৬. সৈয়দ মাও. হাবিব উল্লাহ বেলালী, সৌদিআরব, ৭. মাও. আতাউর রহমান মারুফ, সৌদিআরব, ৮. মাও. জসিম উদ্দীন, সৌদিআরব, ৯. মাও. ওসমান গনী রাসেল, সৌদিআরব, ১০. মাও মজিবুল হক ভুঞা,সৌদিআরব, ১১. মাও. ইব্রাহীম খলিল, সৌদিআরব, ১২. মাও. এমদাদ উল্লাহ, সৌদিআরব, ১৩. মাও. নুরুল ইসলাম, সৌদিআরব, ১৪. মাও. নজরুল ইসলাম, সৌদিআরব, ১৫. মাও. আবু তাহের, সৌদিআরব, ১৬. মাও. ফয়েজ উল্লাহ, সৌদিআরব, ১৭. মাও. আব্দুল্লাহ আল মামুন, সৌদিআরব, ১৮. মাও. শামসুল হক ভুঞা, সৌদিআরব, ১৯. মাও.হাফেজ জাকির হোসেন, সৌদিআরব, ২০. মাও. মাহমুদুল হাসান, সৌদিআরব, ২১. মাও. মীর আহমাদ মিরু, ওমান, ২২. মাও. মিজানুর রহমান, ওমান, ২৩. মাও. এমদাদ উল্লাহ, ওমান, ২৪. মাও. আবুল হাসেম, ওমান, ২৫. মাও. সাইফুল ইসলাম, ওমান, ২৬. মাও.আলিম উল্লাহ, ওমান, ২৭. মাও. রহমত উল্লাহ, ওমান, ২৮. মাও.ওবায়দুল করীম, ওমান, ২৯. মাও. সিরাজুল ইসলাম শিরাজী, ওমান, ৩০. মাও.আজিজ উল্লাহ, আরব আমিরাত, ৩১. মাও. আবুল কাসেম, আরব আমিরাত, ৩৩. শায়খ আবদুর রহমান জামী কুয়েত, ৩৪. শায়খ আইউব ইউনুস, কুয়েত, ৩৫. শায়খ আবদুল্লাহ আল-হারুন, কুয়েত, ৩৬. মাওলানা সৈয়দ জামাল উদ্দীন, কুয়েত, ৩৭. মাওলানা ইসমাঈ আল-হাবীব, কুয়েত, ৩৮. মাওলানা সিহাব উদ্দীন, কুয়েত, ৩৯. মাওলানা কাজী সফি আবেদীন, কুয়েত, ৪০. মাও. জসিম উদ্দীন, কুয়েত, ৪১. মাও.নুরুল্লাহ মিয়াজী, কাতার, ৪২. মাও. হাফেজ তোহা, কাতার, ৪৩. মাও. আব্দুল কুদ্দুস, বাহরাইন, ৪৪. মাও. আব্দুল কাইয়ুম ভুঞা, ইটালী, ৪৫. মাও. আমিরুল ইসলাম, মালয়েশিয়া, ৪৬. মাও. মিজানুর রহমান, পাকিস্তান, ৪৭. মুফতি কামাল উদ্দিন, সাউথ আফ্রিকা, ৪৮. মাও. মাজহারুল ইসলাম, সাউথ আফ্রিকা, ৪৯. মাও. দেলোয়ার হোসেন ফরিদী, সাউথ আফ্রিকা, ৫০. মাও. ইব্রাহীম চৌধরী, সাউথ আফ্রিকা।

৫১. মাও. শোয়াইব, সাউথ আফ্রিকা, ৫২. মাও. জুনাইদ আল হাবীব, সাউথ আফ্রিকা, ৫৩. হাফেজ ওমর ফারুক, সাউথ আফ্রিকা, ৫৪. মাও. নোমান, সাউথ আফ্রিকা, ৫৫. মাও. নুর উদ্দিন, সাউথ আফ্রিকা, ৫৬. মাও. শাহাদাত হোসেন মোরশেদ, ওমান, ৫৭. মাও.মেজবাহ উদ্দীন, সৌদিআরব, ৫৮. মাও. এনায়েত উল্লাহ, সৌদিআরব, ৫৯. মাও. শামসুর রহমান, সৌদিআরব, ৬০. সাংবাদিক মাও. আসগর সালেহী, ওমান, ৬১. মাও.আমীনুল ইসলাম, সৌদিআরব, ৬২. মাও. তৈয়ব উল্লাহ নাসিম, সৌদিআরব, ৬৩. মাও. মোজাম্মেল হক, সৌদিআরব, ৬৪. মাও. রফিক বীন হোসাইন, ওমান, ৬৫. মাও. জামাল উদ্দীন, সৌদিআরব, ৬৬. মাও. হাবীবুর রহমান, সৌদিআরব প্রমুখ।

/এসএস

মন্তব্য করুন