পাকিস্তানে করোনাভাইরাস আক্রান্ত দুইজন শনাক্ত, সিন্ধু-বেলুচে স্কুল বন্ধ

প্রকাশিত: ১০:৪৮ পূর্বাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ২৭, ২০২০
ইনসেটে পাাকিস্তান প্রধানমন্ত্রীর স্বাস্থ্য বিষয়ক বিশেষ সহকারী ডা. জাফর

পাকিস্তানে দুইজন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগি শনাক্ত হয়েছে। সিন্ধু এবং ইসলামাবাদে এ দুজনের সন্ধান পাওয়া গেছে। আক্রান্ত দুজনেই সম্প্রতি ইরান সফর থেকে ফিরেছেন। গতকাল বুধবার পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীর স্বাস্থ্য বিষয়ক বিশেষ সহকারী ডা. জাফর মির্জা এ তথ্য জানিয়েছেন। খবর ডন।

বুধবার সন্ধ্যায় এক টুইট বার্তা ডা. জাফর মির্জা বলেন, ‘আমি পাকিস্তানে করোনভাইরাস প্রথম দুটি মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করতে পারি। ক্লিনিকাল স্ট্যান্ডার্ড প্রোটোকল অনুযায়ী দু’জনেরই যত্ন নেওয়া হচ্ছে এবং দু’জনের অবস্থাই স্থিতিশীল রয়েছে’।

‘আতঙ্কিত হওয়ার দরকার নেই, বিষয়গুলি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে’ বলেও উল্লেখ্য করেন ডা. জাফর মির্জা।

পরে বুধবার গভীর রাতে কোয়েটায় এক সংবাদ সম্মেলনে জাফর মির্জা জানান, করানাভাইসে আক্রান্ত দু’জনের একজন সিন্ধুতে এবং দ্বিতীয়জন ইসলামাবাদে। তিনি জানান, আক্রান্ত উভয় ব্যক্তিই গত দুই সপ্তাহে ইরান ভ্রমণ করেছিলেন। এর বাইরে আর কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি ডা. জাফর মির্জা।

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, করোভাইরাসের ১৫টি সন্দেহভাজন ঘটনা বর্তমানে তদন্তাধীন রয়েছে, এবং এ পর্যন্ত ১০০ সন্দেহভাজনের পরীক্ষা করা হয়েছে।

জনসাধারণকে হাসপাতালে যাওয়ার আহ্বান জানিয়ে ডা. জাফর বলেন, যদি কোনো লক্ষণ অনুভব শুরু করেন তাহলে দ্রুত 1166 নম্বরে সরকারী হেল্পলাইনে যোগাযোগ করবেন। অযথা আতঙ্ক সৃষ্টি করা বা উদ্বেগের পরিবর্তে লোকদের ‘সাবধানতা অবলম্বন করা এবং দায়িত্ববান হওয়া উচিত’ বলেও মন্তব্য করেন ডা. জাফর মির্জা।

তিনি আরো বলেন, ‘আমরা সঠিক পথে আছি। মহামারী রোধে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। আল্লাহর রহমতে এই ভাইরাস পাকিস্তানে প্রাদুর্ভাবের রূপ নেবে না’।

এদিকে সিন্ধু প্রদেশে আক্রান্ত ব্যক্তির তথ্য জানিয়ে স্বাস্থ্য ও জনকল্যাণ মন্ত্রী মিরান ইউসুফ এক বিবৃতিতে বলেছেন, ২২ বছর বয়সী যুবক সম্প্রতি ইরান ভ্রমণ করেছিলেন এবং সেখানেই তিনি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হন।

মিরান ইউসুফ আরো জানান, গত ২০ শে ফেব্রুয়ারি ওই যুবক ইরান থেকে বিমানযোগে করাচি ফিরেন।। তাকে এবং তার পরিবারকে কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছে। এছাড়াও ওই যত যাত্রী ছিলো তাদের সবার স্বাস্থ্য পরীক্ষা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

ডননিউজটিভির সাথে আলাপকালে ইউসুফ মিরান আরো বলেন, ইরানে থাকাকালীন লোকটির লক্ষণ দেখাতে শুরু করেছিল। আজ (বুধবার) আগা খান বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে (একেবিএইচ) তার স্বাস্থ্য পরীক্ষা হয় আর তাতে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে।

ইউসুফ বলেন, সিন্ধু সরকার ফেডারাল সরকার, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা এবং অন্যান্য সংশ্লিষ্টদের এ তথ্য অবহিত করা হয়েছে। তিনি আরও যোগ করেন, ‘তাঁর সাথে যে যাত্রীরা ভ্রমণ করেছিলেন, আমরা সমস্ত যাত্রীদের খোঁজ করে তাদের পরীক্ষা করবো’।

পাকিস্তান মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশনের ডা. কায়সার সাজ্জাদ বলেছেন, ‘তাঁর সাথে যে সমস্ত লোক ভ্রমণ করেছিলেন তাদেরও এই রোগে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি হতে পারে’।

ইসলামাবাদে পাকিস্তান ইনস্টিটিউট অফ মেডিকেল সায়েন্সের (পিমস) মুখপাত্রের মতে, স্কার্ডু থেকে আসা একজন রোগীর করোনভাইরাস পরীক্ষার ফলাফল ইতিবাচক ছিল।

মুখপাত্র বলেছেন যে, রোগী এক মাস আগে ইরান সফর করেছিলেন এবং ধারণা করেছিলেন তাঁর অবস্থা আশঙ্কার বাইরে রয়েছে।

ফতেহ জং জেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাঃ আসাদ ইসমাইল জানান, এক মাসব্যাপী ইরান সফর শেষে গত ১৬ ফেব্রুয়ারি সন্দেভাজন ওই মহিলা দেশে ফিরেছিলেন। বুধবার মহিলাটি ফ্লু এবং গলাতে ব্যথার অভিযোগ করেছেন, যার পরে তাকে বিচ্ছিন্নতা ওয়ার্ডে স্থানান্তরিত করা হয়েছে এবং মেডিকেল পর্যবেক্ষণের জন্য টিএইচকিউ হাসপাতালে পৃথক করা হয়েছে। তিনি বলেছিলেন যে তার নমুনাগুলি পরীক্ষা ও বিশ্লেষণের জন্য ইসলামাবাদের জাতীয় স্বাস্থ্য ইনস্টিটিউটে প্রেরণ করা হয়েছিল।

এদিকে একটি টুইট বার্তায় পাকিস্তানের বিমান পরিবহন মন্ত্রী গোলাম সরোয়ার বলেছেন, ‘করোনাভাইরাসকে সামনে রেখে সমস্ত বিমানবন্দরকে উচ্চ সতর্কতায় রাখা হয়েছে এবং বিমানবন্দরের সমস্ত পরিচালকদেরকে শতভাগ যাত্রীদের স্ক্রিনিং নিশ্চিত করার জন্য নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে’।

সিন্ধু ও বেলুচিস্তানে স্কুল বন্ধ

অন্যদিকে, বেলুচিস্তান সরকার একটি সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসাবে ১৫ ই মার্চ পর্যন্ত এই প্রদেশের সমস্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখার ঘোষণা দিয়েছে।

বেলুচিস্তানের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা মন্ত্রী সরদার ইয়ার মোহাম্মদ রিন্ডের জানান, প্রদেশের সমস্ত সরকারী স্কুল, মাদ্রাসা ও বেসরকারী স্কুল ১৫ ই মার্চ পর্যন্ত বন্ধ থাকবে।

সিন্ধু সরকার ঘোষণা করেছিল যে, বৃহস্পতিবার ও শুক্রবার (২৭ ফেব্রুয়ারি এবং ২৮ ফেব্রুয়ারি) প্রদেশের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকবে।

ইতোমধ্যে সিন্ধুর মুখ্যমন্ত্রী মুরাদ আলী শাহ, করোনভাইরাস ছড়িয়ে পড়া রোধে কৌশল অবলম্বন করতে বৃহস্পতিবার (আজ) জরুরি বৈঠক ডেকেছেন।

/এসএস/ডন থেকে অনুবাদ।

মন্তব্য করুন