সরকারের সায় আছে বলেই এদের ধরা হচ্ছে: কাদের

প্রকাশিত: ৮:৩৩ পূর্বাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ২৫, ২০২০

বহিষ্কৃত যুবলীগ নেত্রী শামিমা নূর পাপিয়া প্রসঙ্গে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, অপরাধী যেই হোক, কেউ পার পাবে না। সরকারের সায় বলেই এ অপরাধীদের ধরা হচ্ছে।

গতকাল সোমবার সচিবালয়ে নিজ দপ্তরে সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের সম্মেলনকক্ষে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের এ কথা বলেন।

সরকারের সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, অপরাধী যে দলেরই হোক, অপরাধ করে কেউ পার পাবে না। অপরাধ অনুযায়ী শামিমা নূর পাপিয়ার বিচার হবে।

তিনি বলেন, ‘যে–ই অপরাধে যুক্ত হবে, দলীয় কিংবা যে পরিচয় থাকুক, তাদের আইনের আওতায় আনতে হবে। সরকারের সায় রয়েছে বলেই এসব অপরাধীদের ধরা হচ্ছে। এ বিষয়ে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর প্রতি সরকারের কঠোর নির্দেশনা রয়েছে। অপরাধ করে কেউ পার পাবে না। সে যে দলেরই হোক।’

প্রসঙ্গত, শনিবার হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে পাপিয়া (২৮), তার স্বামী মফিজুর রহমান ওরফে সুমন চৌধুরী ওরফে মতি সুমন (৩৮) এবং তাদের সহযোগী সাব্বির খন্দকার (২৯) ও শেখ তায়্যিবাকে (২২) গ্রেপ্তার করে র‍্যব।

র‌্যাব জানায়, অবৈধ অস্ত্র ও মাদক ব্যবসা, চাঁদাবাজি, অনৈতিক কর্মকাণ্ড, জাল নোট সরবরাহ, রাজস্ব ফাঁকি, অর্থ পাচারসহ নানা অপরাধের সঙ্গে জড়িত থাকায় তাঁদের গ্রেপ্তার করা হয়।

আজ সোমবার গ্রেপ্তারদের আদালতে হাজির করে রিমান্ড আবেদন করলে বিচারক তিন মামলায় পাপিয়া ও তার স্বামীর ১৫ দিনের এবং অপর দুইজনের পাঁচ দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

এদিকে, গ্রেপ্তারের পর গতকালই পাপিয়াকে আজীবনের জন্য বহিষ্কার করে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের সহযোগী সংগঠন যুব মহিলা লীগ।

জানা যায়, রাজনৈতিক প্রভাব খাটিয়ে দীর্ঘদিন ধরে নানা অপকর্মের মাধ্যমে রমরমা ব্যবসা চালিয়ে আসছিলেন নরসিংদী জেলা যুব মহিলা লীগের সাধারণ সম্পাদক শামীমা নূর পাপিয়া ওরফে পিউ। গত তিন মাসে তিনি হোটেল বিল পরিশোধ করেছেন প্রায় ৩ কোটি টাকা। এর মধ্যে প্রতিদিন বারের বিল দিয়েছেন প্রায় আড়াই লাখ টাকা। অথচ তার আয়কর ফাইলে বছরে আয় দেখানো হয়েছে ২২ লাখ টাকা।

এমএম/পাবলিকভয়েস

মন্তব্য করুন