তাহলে কি শেষ হচ্ছে মাশরাফি অধ্যায় ?

প্রকাশিত: ১০:৫৯ পূর্বাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ২০, ২০২০

ঘরের মাটিতে একটি ওয়ানডে সিরিজ আয়োজন করে বিদায় জানানো হবে অধিনায়ক মাশরাফি মুর্তজাকে। কয়েক মাস আগে এমন ঘোষণা দিয়েছিল বিসিবি। আর জিম্বাবুয়ের বিপক্ষেই যে দেশের হয়ে মাশরাফি তার শেষ ম্যাচটি খেলবেন সেটি বোঝা যায় আগেই। গতকাল এই কথাটিই জানিয়ে দিয়েছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। বিসিবি কার্যালয়ে সাংবাদিকদের জানিয়েছেন জিম্বাবুয়ে সিরিজ দিয়েই বিদায় জানানো হবে অধিনায়ক মাশরাফিকে।

পাপন আরো জানিয়েছেন আগামী ১ মাসের মধ্যে নতুন অধিনায়কের নাম ঘোষণা করবে বোর্ড। এর ফলে সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে ৩ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশের ক্রিকেটে ইতি ঘটবে মাশরাফি অধ্যায়ের। যদিও পাপন পরিষ্কার করে বলেননি এই ম্যাচটির মাধ্যমেই ক্রিকেটকে মাশরাফি পুরোপুরি বিদায় জানাবেন কিনা। তিনি জানিয়েছেন এই সিদ্ধান্ত পুরোপুরি মাশরাফির হাতে তুলে দেবেন তারা। তবে এটা মোটামুটি বলা যায় জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়েই নিজের ব্যাট-বল সো কেসে তুলে রাখবেন মাশরাফি।

মাশরাফি মুর্তজা টেস্ট ক্রিকেটকে বিদায় জানান ২০০৯ সালে। এরপর চালিয়ে যান টি-টোয়েন্টি ও ওয়ানডে খেলা। ২০১৭ সালে টি-টোয়েন্টিকেই বিদায় জানিয়ে দেন তিনি। ২০১৭ সালের পর থেকে শুধু ওয়ানডেটাই চালিয়ে যাচ্ছেন। তার অধীনে ২০১৭ সালে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের সেমিফাইনালে খেলার যোগ্যতা অর্জন করে বাংলাদেশ। এছাড়া ২০১৫ বিশ্বকাপে কোয়ার্টার ফাইনালে খেলে টাইগাররা, যা ছিল বাংলাদেশের ক্রিকেটের ইতিহাসে অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ অধ্যায়। ওই সময়ের পর থেকেই ওয়ানডেতে নিজেদের একটি আধিপত্য তৈরি করে লাল-সবুজের প্রতিনিধিরা।

মাশরাফি মুর্তজা তার ক্রিকেট ক্যারিয়ার শুরু করেন জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে। ২০০১ সালের ৮ নভেম্বর বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে আফ্রিকান দেশটির বিপক্ষে টেস্ট ম্যাচের মাধ্যমে অভিষেক হয় তার। এরপর ওই বছরই ২৩ নভেম্বর চট্টগ্রামের এমএ আজিজ স্টেডিয়ামে ওয়ানডে অভিষেক হয় তার। আর ক্রিকেটের সংক্ষিপ্ত সংস্করণ টি-টোয়েন্টিতে তার অভিষেক হয় ২০০৬ সালে খুলনার শেখ আবু নাসের স্টেডিয়ামে। টেস্ট ও ওয়ানডের মতো টি-টোয়েন্টিতেও তিনি তার প্রথম ম্যাচটি খেলেন জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে। এখন জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে এই সিরিজের পর যদি মাশরাফি অফিসিয়ালভাবে নিজের বিদায়ের কথা জানান তাহলে জিম্বাবুয়ে দিয়ে শুরু করে জিম্বাবুয়ে দিয়েই শেষ হবে তার ক্রিকেট ক্যারিয়ার।

এদিকে মাশরাফি টাইগারদের জার্সি গায়ে তার সর্বশেষ ম্যাচটি খেলেন গত জুলাইয়ে ইংল্যান্ডে অনুষ্ঠিত হওয়া বিশ^কাপে। সেই বিশ^কাপে বাংলাদেশ যেমন প্রত্যাশা করেছিল সেই অনুযায়ী সাফল্য পায়নি। ফলে ইচ্ছে করেই ক্রিকেট থেকে দূরে চলে যান অধিনায়ক মাশরাফি মুর্তজা। বিশ^কাপের পর শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজ খেলতে যায় টাইগাররা। সেই সিরিজে খেলেননি তিনি। এরপর অবশ্য আর কোনো ওয়ানডে ম্যাচ খেলেনি বাংলাদেশ। ফলে মাশরাফিরও আর মাঠে নামা হয়নি। এর ফলে জিম্বাবুয়ে সিরিজের মাধ্যমে প্রায় ৮ মাস পর আবার বল হাতে মাঠ দাপাতে দেখা যাবে বাংলাদেশের ক্রিকেটের অন্যতম সফল বোলারকে।

এমএম/

মন্তব্য করুন