২২ শিক্ষার্থীর চুল কেটে বিদ্যালয় থেকে বের করে দেওয়ায় প্রধান শিক্ষক অবরুদ্ধ

প্রকাশিত: ৯:০৪ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ৯, ২০২০

নাটোরের বড়াইগ্রাম উপজেলার জোয়াড়ী দ্বিমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের ২২ শিক্ষার্থীর চুল কেটে দিয়েছেন বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সেকেন্দার আলী। এ ঘটনায় প্রধান শিক্ষক সেকেন্দার আলীকে পাঁচ ঘণ্টা অবরুদ্ধ করে রাখে শিক্ষার্থীরা।

রোববার (০৯ ফেব্রুয়ারি) সকালে উপজেলার জোয়াড়ী দ্বিমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ ও শিক্ষার্থীরা জানায়, রোববার সকালে জোয়াড়ী দ্বিমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বিভিন্ন শ্রেণির প্রায় ২২ জন ছাত্রের মাথার চুল এলোমেলোভাবে কেটে দেন। এরপর বিদ্যালয় থেকে তাদের বের করে দেন। এতে শিক্ষার্থী-অভিভাবক ও স্থানীয়রা বিক্ষোভ মিছিল করে প্রধান শিক্ষককে অবরুদ্ধ করে।

পরে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়েন করা হয়। তাতেও সমস্যার সমাধান না হলে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আনোয়ার পারভেজ বিদ্যালয়ে গিয়ে তদন্ত কমিটি গঠন ও প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের আশ্বাস দেন। এরপর বিক্ষোভকারীরা অবরোধ তুলে নেয়।

এ সময় পুলিশি পাহারায় বিদ্যালয় ত্যাগ করেন প্রধান শিক্ষক। বড়াইগ্রাম উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আনোয়ার পারভেজ বলেন, এ ঘটনায় তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটিকে আগামী তিন কার্যদিবসের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে।

প্রতিবেদন পাওয়ার পর প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

মন্তব্য করুন