চলছে মোদি সরকারের বিরুদ্ধে জমিয়তের শেষ দিনের গণঅবস্থান

প্রকাশিত: ১১:২১ পূর্বাহ্ণ, জানুয়ারি ২৫, ২০২০

ইসমাঈল আযহার
সহ-সম্পাদক

বিতর্কিত নাগরিকত্ব আইন, জাতীয় নাগরিকপঞ্জি ‘এনআরসি’ ও জাতীয় জনসংখ্যা নিবন্ধন ‘এনপিআর’-এর বিরুদ্ধে তিন দিনের গণঅবস্থান কর্মসূচির শেষ দিন আজ। ২৩ জানুয়ারি এ গণঅবস্থানের ডাক দেয় জমিয়তে উলামায়ে হিন্দ।

আইনগুলোকে সংবিধানবিরোধী আখ্যা দিয়ে এর প্রতিবাদে পশ্চিমবঙ্গের রাজধানী কলকাতায় তিন দিনের গণঅবস্থান কর্মসূচি পালিত হচ্ছে।

জমিয়তে উলামায়ে হিন্দ পশ্চিমবঙ্গ শাখার সভাপতি ও রাজ্যের মন্ত্রী মাওলানা সিদ্দিকুল্লাহ চৌধুরী এ কর্মসূচি নেতৃত্ব দিচ্ছেন।

গণঅবস্থানের প্রথমদিন মিছিল নিয়ে সেখানে অবস্থান নেয়া হয়। কলকাতার রাজাবাজার চৌরাস্তা থেকে হাজার হাজার মানুষের মিছিল হয়। প্রতিবাদ মিছিলটি শিয়ালদহ, মৌলালী হয়ে রামলীলা ময়দানে পৌঁছায়।

কলকাতার আইনজীবী, বুদ্ধিজীবিসহ সর্বস্তরের সব ধর্মের, বর্ণের ভারতবাসী এ গণঅবস্থানে উপস্থিত অংশ নিয়েছেন।

ইস্যুটি নিয়ে সংখ্যালঘুদের পাশাপাশি সংখ্যাগুরু মানুষজন গোটা ভারতে প্রতিবাদ করছেন। সংখ্যালঘুরা একা প্রতিবাদ করলে দাঙ্গা বেধে যাবে। সংখ্যাগুরুরা সঙ্গ দিয়েছেন বলেই গণপ্রতিবাদ সম্ভব হচ্ছে বলে জানান মাওলানা সিদ্দিকুল্লাহ।

এনআরসি, সিএএ ও এনপিআর নিয়ে প্রধানমন্ত্রী ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী যে আগ্রাসী পরিবেশ তৈরি করেছেন গণতান্ত্রিক দেশে তা মেনে নেয়া যায় না বলে মন্তব্য করেছেন,জমিয়তে উলামায়ে হিন্দের পশ্চিমবঙ্গ শাখার সাধারণ সম্পাদক মুফতি আব্দুস সালাম।

আই.এ/

মন্তব্য করুন