ঢাবি ছাত্রীকে ধর্ষণ; ৭ দিনের রিমান্ডে মজনু

প্রকাশিত: ৭:১০ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ৯, ২০২০

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেফতার মো. মজনুকে সাত দিনের রিমান্ডে নেওয়ার অনুমতি দিয়েছেন আদালত। পুলিশের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে বৃহস্পতিবার (৯ জানুয়ারি) দুপুরে ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম সারাফুজ্জামান আনছারী শুনানি শেষে এ আদেশ দেন।

এর আগে, পুলিশ গ্রেফতার মজনুকে আদালতে হাজির করে ১০ দিন রিমান্ডে নেওয়ার আবেদন করে। এ দিন বাদীর পক্ষের ঢাকা মহানগর পাবলিক প্রসিকিউটর আবদুল্লাহ আবু, মো. নিজামুল হক, গোলাম মোস্তফা খান, আবদুল্লাহ মাহমুদ হাসান, জাহাঙ্গীর আলম, ইকবাল হোসেনসহ প্রমুখ রিমান্ডের পক্ষে শুনানি করেন।

অপরদিকে, আদালতে মজনুর পক্ষে কোনো আইনজীবী ছিলেন না। বুধবার (৮ জানুয়ারি) মজনুকে গ্রেফতার করে গোয়েন্দা পুলিশের হাতে তুলে দেয় র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)।

এর আগে, রবিবার (৫ জানুয়ারি) সন্ধ্যা সাড়ে ৫টার দিকে ধর্ষণের শিকার ওই শিক্ষার্থী শেওড়ায় বান্ধবীর বাসায় যাওয়ার উদ্দেশ্যে ঢাবির বাসে ওঠেন। সন্ধ্যা ৭টার দিকে কুর্মিটোলায় বাস থেকে নামার পর অজ্ঞাত ব্যক্তি তার মুখ চেপে ধরলে অজ্ঞান হয়ে যান তিনি। পরে তাকে পার্শ্ববর্তী একটি স্থানে নিয়ে ধর্ষণ করা হয়। ঘটনাটি সন্ধ্যা ৭টা থেকে ৮টার মধ্যে ঘটে।

এরপর ১০টার দিকে জ্ঞান ফিরলে তিনি নিজেকে নির্জন স্থানে আবিষ্কার করেন। পরে তিনি রিকশায় করে বান্ধবীর বাসায় গিয়ে বিষয়টি তাদের জানান। পরে তার সহপাঠীরা রাত ১২টার দিকে ঢামেক হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে ভর্তি করেন। পরদিন ক্যান্টনমেন্ট থানায় একটি মামলা দায়ের করেন ওই ছাত্রীর বাবা। ওই ধর্ষণের ঘটনায় মজনু নামের ব্যক্তিকে গ্রেফতার করে র‌্যাব।

আই.এ/

মন্তব্য করুন