প্রতিমাসে গড়ে ধর্ষিত হচ্ছে ৮৪ শিশু; যৌন নির্যাতনের আশংকাজনক মাত্রা

প্রকাশিত: ৮:৩৭ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ৮, ২০২০

২০১৯ সালে এক হাজার অতিক্রম করেছে শিশু ধর্ষণের সংখ্যা। আর প্রতিমাসে গড়ে প্রায় ৮৪ টি শিশু ধর্ষিত হচ্ছে। সার্বিক শিশু নির্যাতন কিছুটা কমলেও শিশুদের প্রতি যৌন নির্যাতন বেড়েছে আশংকাজনক মাত্রায়। এমন তথ্য জানিয়েছে বাংলাদেশ শিশু অধিকার ফোরাম।

বুধবার (৮ জানুয়ারি) রাজধানীর ডিআরইয়ের সাগর-রুনি মিলনায়তনে ‘বাংলাদেশে শিশু অধিকার পরিস্থিতি ২০১৯’ প্রকাশ বিষয়ক প্রেস ব্রিফিং এসব তথ্য জানায় সংগঠনটি।

বিবৃতিতে বলা হয়, শিশু অধিকার পরিস্থিতি ২০১৯ (জানুয়ারি-ডিসেম্বর) সময়ে ১৫টি জাতীয় দৈনিক পত্রিকার সংবাদ পর্যালোচনায় ৪ হাজার ৩৮১টি শিশু বিভিন্ন ধরনের সহিংসতা ও নির্যাতনের শিকার হয়েছে। যাদের মধ্যে ২ হাজার ৮৮ শিশু অপমৃত্যুর শিকার হয়েছে এবং ১ হাজার ৩৮৩টি শিশু যৌন নির্যাতনের শিকার হয়েছে। অর্থাৎ গড়ে প্রতিমাসে ৩৬৫টি শিশু বিভিন্ন রকমের সহিংসতার শিকার হয়েছে।

বিএসএএফ ৬টি ক্যাটাগরিতে শিশু নির্যাতনের তথ্যের বিশ্লেষণ করে থাকে। যার প্রায় সবকটিতেই ২০১৮ সালের তুলনায় ২০১৯ সালে শিশু নির্যাতন ও সহিংসতা কমলেও আশঙ্কাজনকভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে শিশু যৌন নির্যাতনের ঘটনা। তবে ২০১৮ সালের তুলনায় ২০১৯ সালে শিশুদের প্রতি সহিংসতার হার কমেছে ৩৪.৭৪%।

শিশু নির্যাতন বন্ধে পারিবারিক ও সামাজিক মূল্যবোধের অবক্ষয় রোধ করে একটি শিশুবান্ধব সমাজ ব্যবস্থা গড়ে তোলার তাগিদ দিয়েছে সংগঠনটি।

বাংলাদেশ শিশু অধিকার ফোরামের পরিচালক আবদুছ সহিদ মাহমুদের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান নাছিমা বেগম, ইউএনডিপি’র হিউম্যা রাইটস প্রোগ্রামের চিফ টেকনিক্যাল অ্যাডভাইজার শরমিলা রাসুল এবং টেরে ডেস হোমস নেদারল্যান্ডসের কান্ট্রি ডিরেক্টর মাহমুদুল কবীর ‍উপস্থিত ছিলেন।

প্রসঙ্গত, বাংলাদেশ শিশু অধিকার ফোরাম (বিএসএএফ) শিশুদের নিয়ে কাজ করে সরকার কর্তৃক নিবন্ধিত এমন ২৭২টি বেসরকারি উন্নয়ন সংগঠনের (এনজিও) একটি সমন্বিত জাতীয় নেটওয়ার্ক। জাতিসংঘ শিশু অধিকার সনদ বাস্তবায়নের লক্ষ্যে ১৯৯০ সালে প্রতিষ্ঠার পর থেকে বাংলাদেশে শিশু অধিকার রক্ষায় বাংলাদেশ শিশু অধিকার ফোরাম নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে।

আই.এ/

মন্তব্য করুন