খাবারে অরুচি দূর করুন

প্রকাশিত: ১১:৪৪ পূর্বাহ্ণ, ডিসেম্বর ১৮, ২০১৯

খাবারে অরুচির কারণে অনেকসময় অসুস্থতা লেগেই থাকে। অরুচি হতে পারে বিভিন্ন কারণে তাই খাবারে রুচি ফিরিয়ে আনতে না পারলে স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে পড়ার সম্ভাবনা থেকে যাবে। তাই জেনে নিন রুচি বাড়ানোর কিছু উপায় হজম প্রক্রিয়া ঠিকঠাক রাখতে এবং পিত্তরস নিঃসৃত করতে সাহায্য করে মৌরি। মৌরির চা খাওয়া যেতে পারে, যা খাবারে রুচি বাড়াতে ভূমিকা রাখে। দু কাপ পানিতে এক চা চামচ মৌরি এবং এক চা চামচ মেথি ফুটিয়ে নিয়ে দিনে এক বা দুইবার খাওয়া যেতে পারে। এতে করে খুব সহজেই খাবারের অরুচি দূর হয়। যোগব্যায়াম সহজেই হজম প্রক্রিয়া সক্রিয় করে।

প্রতিদিন ২৫ থেকে ৩০ মিনিট যোগব্যায়াম করলে শারিরীক ও মানসিক স্বাস্থ্য ভালো থাকে। যোগব্যায়াম করতে চাইলে ডাক্তার ও প্রশিক্ষকের পরামর্শ অনুযায়ী চলতে হবে। যোগব্যায়ামের ফলে হজম ঠিকঠাক হওয়ায় খাবারে অরুচি দূর হয়। আদার রস শুধু যে খাবারের স্বাদ বাড়ানোতে ব্যবহার হয় তা নয়। খাবারের স্বাদ বাড়ানোর পাশাপাশি আদার রসের প্রাকৃতিক তেল হজমের সময় উৎপন্ন গ্যাস দূর করতে সহায়তা করে।

প্রতিদিন দুবার গরম পানিতে আধা চামচ আদার রস মিশিয়ে পান করুন। এছাড়া রান্নাঘরেও আদার ব্যবহার সমানভাবে চলে। আদা লবণ দিয়ে খেলেও অরুচি দূর হয়। আদা প্রাকৃতিকভাবে হজমে সহায়তা করে বলে খাবারে অরুচি দূর হয়। বেশকিছু ফল আছে যা ক্ষুধা বাড়াতে কার্যকর। পেয়ারা, কমলা, আপেল, আঙ্গুর ইত্যাদি ফল ক্ষুধা বাড়াতে সহায়তা করে। টমেটো, ধনেপাতা হজমে সহায়তা করে। ফল ও সবজি এনজাইম নিঃসরন করে এবং হজমে সাহায্য করে থাকে। তাই যাদের খাবারে প্রতি অরুচি কিংবা ক্ষুধা মন্দা আছে তারা ক্ষুধা মন্দা বা অরুচি দূর করতে খাদ্যতালিকায় প্রচুর ফল ও সবজি রাখা উচিত।

চা, কফি, কোমল পানীয় খাবারের প্রতি অরুচি সৃষ্টি করে। অতিরিক্ত পানীয় গ্রহণের ফলে বেশিরভাগ সময়ই পেট ভরা অনুভব হয়। ফলে খাবারে অরুচি দেখা দেয়। তাই অতিরিক্ত পানীয় গ্রহণ থেকে দূরে থাকুন৷ নিয়মমাফিক চললে খাবারে অরুচি সমস্যা দেখা দেয় না। নিয়ম মেনে চললে শরীর কার্যক্ষম থাকে। ঠিকঠাক ঘুমানো, ঘুম থেকে ওঠা, সময় মতো খাওয়া দাওয়া করা, ব্যায়াম করা, পর্যাপ্ত পানি পান করলে শরীর স্বাভাবিক থাকে। নিয়ম মেনে চললে খাবারে অরুচি সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া যায়।

আই.এ/

মন্তব্য করুন