ব্রাক্ষণবাড়ীয়ায় মানববন্ধন: যমুনা টেলিভিশন সম্প্রচার নীতিমালা ভঙ্গ করেছে

প্রকাশিত: ৮:১৫ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ২, ২০১৯

শায়খুল হাদীস আল্লামা আজিজুল হক রহ.-কে জঙ্গীবাদের প্রতিষ্ঠাতা বলে যমুনা টেলিভিশন যে কাল্পনিক ও মিথ্যা সংবাদ পরিবেশন করেছে তার বিরুদ্ধে ব্রাক্ষণবাড়ীয়া কওমী মাদরাসার সর্বস্থরের ছাত্রদের উদ্দ্যেগে আজ সোমবার বাদ আসর ব্রাক্ষণবাড়ীয়া প্রেসক্লাবের সামনে এক প্রতিবাদী মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

মুফতি কেফায়েতুল্লাহর সভাপতিত্বে ও মাওলানা আশরাফুল ইসলামের পরিচালনায় এতে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন মাওলানা বোরহান উদ্দিন আল মতিন।

এছাড়াও বক্তব্য রাখেন মুফতী মোহাম্মদ এনামুল হাসান, মাওলানা ইউসুফ ভূঁইয়া, মাওলানা কাওসার মোল্লা, মাওলানা মাসউদুর রহমান খান, মাওলানা যুবায়ের সাইফুল্লাহ, মাওলানা ইসহাক আল মামুন, মাওলানা আবুল হাসান, মাওলানা সৈয়দ কাসেম, মাওলানা ইয়াসিন আরাফাত নবীনগরী, মাওলানা আব্দুল্লাহ কাফি, মাওলানা মাহমুদ হাসান প্রমুখ।

উক্ত মানববন্ধনে বক্তাগণ বলেন, শায়খুল হাদীস আল্লামা আজিজুল হক রহ. সারাজীবন বাংলাদেশের স্বাধীনতা সার্বভৌমত্ব হেফাজতের জন্য নিজের জীবন উৎস্বর্গ করে গেছেন। রাজনৈতিক ও ইসলামী অঙ্গণে শায়খুল হাদীসের অবদান অনস্বীকার্য। কিন্তু হঠাৎ করেই যমুনা টেলিভিশন শায়খুল হাদীস আল্লামা আজিজুল হক রহ.-কে নিয়ে কেন মিথ্যা সংবাদ পরিবেশন করেছে তা বোধগম্য নয়। এ সংবাদে দেশের লক্ষ লক্ষ আলেম উলামা ক্ষুব্ধ বিক্ষুব্ধ হয়েছে।

বক্তাগণ আরো বলেন, যমুনা টেলিভিশন মিথ্যা সংবাদ পরিবেশন করে সম্প্রচার নীতিমালা ভঙ্গ করেছে তাই তাদেরকে আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দিতে হবে। অন্যথায় এদেশের আলেম উলামা এর প্রতিবাদে রাজপথে নেমে আসতে বাধ্য হবে।

মানববন্ধনে বক্তাগণ অবিলম্বে যমুনা টেলিভিশন কর্তৃপক্ষকে দেশবাসীর কাছে ক্ষমা চাওয়ার আহবান জানিয়ে বলেন অন্যথায় এর জন্য দেশে কোনো প্রকার অঘটন ঘটলে যমুনা টেলিভিশন কর্তৃপক্ষকেই এর দায়িত্ব নিতে হবে।

/এসএস

মন্তব্য করুন