ইডেনে হাসিনা-মমতা-অমিত: মোদি কি থাকছেন?

প্রকাশিত: ৫:১২ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১৩, ২০১৯

ক্রীড়া প্রতিবেদক: সদ্য সমাপ্ত টি-টোয়েন্টি সিরিজ শেষে টেস্ট সিরিজে মুখোমুখি হতে মুখিয়ে আছে বাংলাদেশ-ভারতের ক্রিকেরটাররা। সেই সাথে আগ্রহ ভরে অনুসন্ধানী দৃষ্টিতে তাকিয়ে আছে দুই দেশের ক্রিকেট ভক্তরা। কারণ, দুই দেশের ক্রমেই চিরপ্রতিদ্বন্ধী প্রতিক্ষ হয়ে ওঠা ক্রিকেট মঞ্চের এই সিরিজে ইডেনে দেখা হতে পারে দেশ দুটির প্রধানমন্ত্রীসহ গুরুত্বপূর্ণ রাজনৈতিক নেতাদের।

আগামী ২২ নভেম্বর ইডেনে মাঠে বসে খেলা দেখার জন্য বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে আমন্ত্রণ জানিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের রাজ্য ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন (সিএবি) প্রেসিডেন্ট নব নিযুক্ত ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলী। এরই মধ্যে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার সম্মতির কথা জানিয়েছেন। নরেন্দ্র মোদির দফতর থেকে এখনো এ ব্যাপারে নিশ্চিত করা না হলেও এই ম্যাচে ইডেনে বসে সরাসরি খেলা উপভোগ করবেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

এই খবরের সাথে সর্বশেষ যুক্ত হলো ভারতের কেন্দ্রীয় সরকারের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ এর নাম। এনডিটিভির খবরে বলা হয়, ইডেনের ঐতিহাসিক এ ম্যাচে মাঠে থেকে খেলা দেখবেন ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ।

পশ্চিমবঙ্গের রাজ্য ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন ‘সিএবি’ জানিয়েছে, ইতোমধ্যেই দুই দেশের এই তিন রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব ভারতের প্রথম গোলাপি বলের টেস্ট ম্যাচে ইডেনে আসার ব্যাপারে সবুজ সংকেত দিয়েছেন। তবে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে আমন্ত্রণ জানানো হলেও তার দফতর থেকে এখন পর্যন্ত সিএবির কাছে সম্মতিসূচক বার্তা এসে পৌঁছায়নি।

এদিকে প্রথম দিনের খেলার পর রাতে বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠানের আয়োজন করবে সিএবি। সাবেক অধিনায়কদের সেখানে সংবর্ধনা দেয়া হবে। বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকেও সেখানে বিশেষ সম্মাননা দেয়া হবে বলে জানা গেছে।

বক্তব্য রাখবেন উপস্থিত রাজনৈতিক হেভিওয়েটরা। সেখানেই ক্রিকেটারদের প্রতিনিধি হিসেবে বক্তার ভূমিকায় ভাবা হচ্ছে শচীন টেন্ডুলকারকে। তাকে অনুরোধ করা হয়েছে, ইডেনের দর্শকদের উদ্দেশে কিছু বলার জন্য। এছাড়াও সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের পরে সংগীত পরিবেশন করতে পারেন সুরকার ও গায়ক জিৎ গঙ্গোপাধ্যায়।

/এসএস

মন্তব্য করুন