দুর্নীতি করেও অনায়াসে চাকরি করে যাচ্ছেন ইসমত আরা

প্রকাশিত: ৮:৩৮ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১১, ২০১৯

কাওছার আহমেদ,পটুয়াখালী প্রতিনিধি: পটুয়াখালী বাউফলে আনসার ভিডিপি কর্মকর্তা বালিশ দুর্নীতিকে হার মানার পরও ঐ স্থানে অনায়াসে  চাকুরী করে যাচ্ছেন ইসমেত আরা।

গত ২০১৮ সালে আনসার বাহিনীতে উপজেলা আনসার কোম্পানি কমান্ডার সহকারি কম্পানি কমান্ডার পুরুষ ও মহিলা এবং প্রতিটি ইউনিয়নে ইউনিয়ন আনসার প্লাটুন কমান্ডার ও সহকারি ইউনিয়ন প্লাটুন কমান্ডার নিয়োগ প্রদান করেন বাংলাদেশ সরকারের অনুমতি সাপেক্ষে।

তাদের মাসিক ভাতা ইউনিয়নের একজন ১২০০ ও অপরজন ১০০০ উপজেলা মহিলা প্লাটুন কমান্ডার একইরুপ কিন্তু উপজেলা কোম্পানি কমান্ডার ১৫০০ সহকারি ১৩০০ টাকা করে সরকারি ভাবে প্রদান করেন। কিন্তু ভাতার বরাদ্দ আসে একত্রে সকলের ০৬ মাসের টাকা।

এই টাকা বিতরনের সময় পটুয়াখালী জেলা কমান্ড্যান্ট-এর নির্দেশে বাউফল উপজেলা আনসার ভিডিপি কর্মকর্তা ইসমেত আরা সকলের কাছে বিভিন্ন খরজ দেখিয়ে ১৫০০ হইতে ২২০০ টাকা পর্যন্ত কম দিয়েছিল সেই বিষয়টি তখন বিভিন্ন পত্রিকায় সংবাদে আসে। তার পর জেলা কমান্ড্যান্ট বাউফল উপজেলার নিয়োগ প্রাপ্ত আনসার কমান্ডারদেরকে চাকুরীচুত্য করার ভয় দেখিয়ে সকলের কাছে লিখিত জবানবন্দি গ্রহণ করে রাখে এ বিষয়টি বিভিন্ন পত্রিকায় প্রকাশিত হয়েছিল।

এ ঘটনার বিষয়টি বিভিন্ন ভাবে তদন্ত করেছিল কিন্তু এর কোন প্রতিফলন হয় নাই। তাতে বুঝাগেল আনসার বাহিনীতে যে বেশী অপকর্ম বা দুর্নীতি করে সে ভাল ভাবে চাকুরী করতে পারে। তাই স্থানীয় আনসার ভিডিপির সদস্যাদের মাঝে ক্ষোভের জন্ম নিয়েছে। তারা গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নিকট দুর্নীতি জিরো টলারেন্স নামিয়ে আনার প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়ণ ও এসব কর্মকর্তাকে বিচারের আওতায় আনার দাবি জানান।

আই.এ/

মন্তব্য করুন