ক’জনের ফাঁসি বহাল থাকবে তা হাইকোর্টের বিবেচ্য বিষয়: অ্যাটর্নি জেনারেল

প্রকাশিত: ১:৩৫ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ২৪, ২০১৯

নুসরাত হত্যা মামলার রায় ঘোষণার পর তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করে রাষ্ট্রের প্রধান আইন কর্মকর্তা অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম বলেন, গুরুত্বপূর্ণ মামলাগুলোর রায় স্বল্প সময়ে হওয়া উচিত।

ফেনীর মাদরাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফি হত্যা মামলার দ্রুত রায় প্রসঙ্গে বৃহস্পতিবার (২৪ অক্টোবর) সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে মাহবুবে আলম বলেন, ‘রায় এমনই হওয়া উচিত। গুরুত্বপূর্ণ মামলাগুলোর স্বল্প সময়ে রায় হওয়া উচিত। এটা (রায়) চূড়ান্তভাবে নির্ধারিত হবে হাইকোর্টে। কত জনের ফাঁসি বহাল থাকবে, বা থাকবে না— এটা হাইকোর্টের বিবেচ্য বিষয়। আমি ব্যক্তিগতভাবে সন্তোষ প্রকাশ করছি এ জন্য যে, এত অল্প সময়ের মধ্যে বিচার কাজটা সম্পন্ন হলো।’

আজ বৃহস্পতিবার (২৪ অক্টোবর) ফেনীর সোনাগাজীর মাদরাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফিকে পুড়িয়ে হত্যা মামলার রায় ঘোষণা করা হয়। এই রায়ে নুসরাত হত্যা মামলার ১৬ আসামিকে মৃত্যুদন্ড দিয়েছে ফেনী আদালত।

ফেনীর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন বিশেষ ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. মামুনুর রশিদের আদালতে আজ বৃহস্পতিবার বেলা সোয়া ১১টার দিকে এ রায় ঘোষণা করেন। এর আগে গত ৩০ সেপ্টেম্বর মামলার দুই পক্ষের যুক্তিতর্কের শুনানি শেষে বিচারক এই দিন ধার্য করেন।

মৃত্যুদন্ডপ্রাপ্ত ১৬ আসামি হলেন—সোনাগাজী ইসলামিয়া ফাজিল (ডিগ্রি) মাদরাসার বরখাস্ত হওয়া অধ্যক্ষ সিরাজউদ্দৌলা, সোনাগাজী উপজেলা আওয়ামী লীগের তৎকালীন সভাপতি রুহুল আমিন, সোনাগাজী পৌরসভার কাউন্সিলর মাকসুদুল আলম, মাদ্রাসার শিক্ষক আবদুল কাদের, প্রভাষক আফসার উদ্দিন, মাদরাসার ছাত্র নূর উদ্দিন, শাহাদাত হোসেন শামীম, সাইফুর রহমান মোহাম্মদ যোবায়ের, জাবেদ হোসেন ওরফে সাখাওয়াত হোসেন জাবেদ, কামরুন নাহার মনি, উম্মে সুলতানা পপি ওরফে তুহিন, আবদুর রহিম শরিফ, ইফতেখার উদ্দিন রানা, ইমরান হোসেন মামুন, মোহাম্মদ শামীম ও মহি উদ্দিন শাকিল।

প্রসঙ্গত, গত ৬ এপ্রিল সোনাগাজী ইসলামিয়া সিনিয়র ফাজিল মাদরাসায় আলিম পরীক্ষার কেন্দ্রে গেলে মাদরাসার ছাদে ডেকে নিয়ে নুসরাতের গায়ে কেরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয় মুখোশধারী দুর্বৃত্তরা। এর আগে মাদরাসার অধ্যক্ষ সিরাজ উদ দৌলার বিরুদ্ধে করা শ্লীলতাহানির মামলা প্রত্যাহারের জন্য রাফিকে চাপ দেয় তারা। পরে আগুনে ঝলসে যাওয়া রাফিকে প্রথমে স্থানীয় হাসপাতালে এবং পরে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।চিকিৎসাধীন অবস্থায় ১০ এপ্রিল রাতে নুসরাত জাহান রাফি মারা যান।

ইসমাঈল আযহার/পাবলিক ভয়েস

মন্তব্য করুন