খুলনায় কলেজ ছাত্রীর আত্মহত্যা, প্রেমিকার মা গ্রেফতার

প্রকাশিত: ১২:৩৭ পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ২৪, ২০১৯

খুলনা প্রতিনিধি: খুলনা মহানগরীর সোনাডাঙ্গা থানাধিন সবুজবাগ এলাকায় সুষ্মিতা সরকার বৈশাখী নামের এক কলেজ ছাত্রীর ঝুলন্ত মরদেহ আজ বুধবার (২৩ অক্টোবর) সকালে উদ্ধার করা হয়। উদ্ধারের ঘটনায় কথিত প্রেমিকসহ দু’জনকে জেল হাজতে প্রেরণ করেছেন আদালত। এছাড়া পুলিশ তাদেরকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ৫দিনের রিমান্ড আবেদন করেছে। আগামী রোববার রিমান্ড শুনানীর দিন নির্ধারণ করেছে আদালত।

বুধবার তাদের আদালতে সোপর্দ করা হলে মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ শাহীদুল ইসলাম এ আদেশ দিয়েছেন। গ্রেফতারকৃতরা হলেন, সুস্মীতার কথিত প্রেমিক অরিন্দম বিশ্বাস ও তার মা পলি বিশ্বাস।

নিহত ওই ছাত্রী নগরীর পাইওনিয়ার কলেজে এইচএসসি’র দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী। সে বাগেরহাট জেলার মংলা উপজেলার জিয়া সড়কের শ্যামল সরকারের কন্যা।

বুধবার কলেজ ছাত্রী সুষ্মিতা সরকার বৈশাখীর মৃতদেহের ময়রাতদন্ত শেষে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করেছে সোনাডাঙ্গা মডেল থানা পুলিশ।

সোনাডাঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ মমতাজুল হক জানান, সুষ্মিতা সরকার বৈশাখী নগরীর পাইওনিয়ার কলেজে এইচএসসি’র দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী। অরিন্দম তার মায়ের সহযোগীতায় দীর্ঘদিন ধরেই তার সাথে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে শারিরিক সম্পর্ক গড়ে তোলে। নগরীর হাজী ইসমাইল উদ্দিন সড়কের একটি বাড়ির চারতলায় তারা স্বামী স্ত্রী পরিচয়ে থাকত। মেয়েটি বিয়ের জন্য অরিন্দমকে চাপ দিলে সে বিয়ে না করার তালবাহানা শুরু করে।

এক পর্যায়ে সুষ্মিতা গত মঙ্গলবার রাতে গলায় ওড়না দিয়ে ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করে। এসময় অরিন্দম বাড়িতে ছিল না। সকালে লোকজন টের পেয়ে পুলিশকে খবর দিলে তারা লাশটি উদ্ধার করে। এঘটনায় মৃতের বাবা বাদি হয়ে মামলা দায়ের করেছেন। অভিযুক্ত অরিন্দম ও তার মা পলি বিশ্বাসকে গ্রেফতার করে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

/এসএস

মন্তব্য করুন