প্রতি ১২ মিনিটে মারা যাচ্ছে ইয়েমেনের ১টি শিশু: জাতিসংঘ

প্রকাশিত: ১০:৫৩ পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ২৪, ২০১৯

সৌদি আগ্রাসনের শিকার ইয়েমেনে প্রতি ১২ মিনিটে একটি করে শিশু মারা যাচ্ছে বলে জানিয়েছে জাতিসংঘ। বুধবার (২৩ অক্টোবর) নিউইয়র্কে জাতিসংঘের উন্নয়ন কার্যক্রম বা ইউএনডিপি’র পরিচালক আখিম স্টেইনার এক বক্তৃতায় এ তথ্য জানান।

আখিম স্টেইনারের দাবি, খাদ্য, সুপেয় পানি ও প্রয়োজনীয় চিকিৎসার অভাবে এসব শিশু প্রাণ হারাচ্ছে। এর আগে, জাতিসংঘের মানবিক ত্রাণ বিষয়ক উপ মহাসচিব মার্ক লোকক সম্প্রতি বলেছেন, ইয়েমেন বর্তমান মানব ইতিহাসের ভয়াবহত মানবিক বিপর্যয়ের মুখে পড়েছে।

আমেরিকা ও সংযুক্ত আরব আমিরাতসহ আরো কিছু আঞ্চলিক দেশের সহযোগিতায় সৌদি আরব ২০১৫ সালো মার্চ মাস থেকে ইয়েমেনে ভয়াবহ আগ্রাসন চালিয়ে আসছে। এই আগ্রাসনে এখন পর্যন্ত ১৫ হাজারেরও বেশি নিরীহ মানুষ নিহত হয়েছে।

এর আগে গত ২৫ সেপ্টেম্বর ইউনিসেফ প্রতিনিধি সারা বায়েসলো নয়ন্তি বলেন, সংঘাতের প্রত্যক্ষ প্রভাবে ইয়েমেনের প্রতি পাঁচটি স্কুলের একটি ব্যবহার অযোগ্য হয়ে পড়ছে। এই সংঘাত ইয়েমেনের ইতোমধ্যে ভঙ্গুর হয়ে পড়া শিক্ষা পদ্ধতিকে ধ্বংস করে দিচ্ছে। ইউনিসেফের তথ্য অনুযায়ী, দেশটিতে পাঁচ বছরের কম বয়সী ১৮ লাখ শিশু অপুষ্টিতে ভুগছে। জাতিসংঘ ইয়েমেনের মানবিক সংকটকে বিশ্বের সবচেয়ে ভয়াবহ বলে বর্ণনা করেছে।

সংস্থাটি জানায়, সহিসংতা, স্থানচ্যুতি ও স্কুলগুলোতে হামলার কারণে বহু শিশু স্কুলে যেতে পারে না। এই শিশুরা ভয়াবহ নিপীড়নের ঝুঁকিতে রয়েছে। তাদের অনেকেই যুদ্ধে যোগ দিতে কিংবা বাল্য বিয়েতে বাধ্য হচ্ছে। বেড়ে গেছে শিশু শ্রমও।

ইসমাঈল আযহার/পাবলিক ভয়েস

মন্তব্য করুন