এমপিও ভুক্তি হল ৫২২ মাদরাসা

প্রকাশিত: ৫:৫২ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ২৩, ২০১৯

ইসমাঈল আযহার
পাবলিক ভয়েস

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২৭৩০টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এমপিও ভুক্তির ঘোষণা দিয়েছেন এবং এর নীতিমালা যথাযথভাবে মেনে চলার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের প্রতি নির্দেশ দিয়েছেন। ২৭৩০টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ৫২২টি মাদরাসা এমপিও ভুক্তির ঘোষণা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। যা মোট সংখ্যার চার ভাগের এক ভাগ প্রায়।

২৭৩০টি এমপিও ভুক্ত প্রতিষ্ঠানের মধ্যে নিন্ম মাধ্যমিক বিদ্যালয় ৪৩৯টি ,মাধ্যামিক বিদ্যালয় ৯৯৫টি , কলেজ ৯৩টি, ডিগ্রী কলেজ ৫৬টি , ৫৫৭টি মাদরাসা এবং ৫২২টি কারিগরি শিক্ষা ইনস্টিটিউশন রয়েছে।

এমপিও ভুক্তির ঘোষণা প্রদানকালে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আপনারা নীতিমালা অনুযায়ী সকল নির্দেশনা পূর্ণ করতে পেরেছেন বলে এমপিও ভুক্ত হয়েছেন। কাজেই এটা ধরে রাখতে হবে।কেউ যদি এটা ধরে রাখতে ব্যর্থ হয়, সাথে সাথে তার এমপিও ভুক্তি বাতিল হবে। কারণ এমপিও ভুক্তি হয়ে গেছে- বেতনতো পাবই, ক্লাশ করানোর দরকার কি, পড়ানোর দরকার কি, এ চিন্তা করলে কিন্তু চলবে না।’

তিনি বলেন, ‘আমি আজকে নতুন করে ২৭৩০টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে এপিও ভুক্ত করলাম। একটি নীতিমালা করে নিয়ে যাচাই বাছাই করে তারপরে এই তালিকাটি তৈরী করা হয়েছে। আমাদের কথা হচ্ছে আমাদের নীতিমালার যে নির্দেশনাগুলো রয়েছে, যারা সেই নির্দেশনাগুলো পুরণ করতে পারবেন এবং সেই স্কুলগুলো যেগুলোর আসলে প্রয়োজন আছে সেটা বিবেচনা করেই আমরা এমপিও ভুক্ত করবো। কাজেই যারাই এমপিও ভুক্তি চান তাদের এই নির্দেশনা মানতে হবে। এমপিও ভুক্তির এই সুযোগটাকে অব্যাহত রাখতে চাইলে সবাইকে মনে রাখতে হবে আমরা করে দিচ্ছি ঠিকই কিন্তু ওই নীতিমালাগুলো পূর্ণ করতে হবে এবং সেটা অব্যাহত রাখতে হবেও বক্তব্যে উল্লেখ করেন তিনি।

প্রধানমন্ত্রী এ সময় সারাদেশে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে মাল্টিমিডিয়া ক্লাশ রুম এবং কম্পিউটার ল্যাব স্থাপন সহ প্রত্যন্ত অঞ্চলে ইন্টারনেট সুবিধা পৌঁছে দিয়ে এবং ডিজিটাল সেন্টার স্থাপনের মাধ্যমে ঘরে বসে উপার্জনের জন্য তার সরকারের’লার্নিং এন্ড আর্নিং কর্মসূচি’ চালু, কওমী মাদরাসার শিক্ষা ব্যবস্থাকে শিক্ষার মূল ধারায় সম্পৃক্ত করা এবং শিক্ষা সম্প্রসারণ ও যুগোপযোগী করনে বিভিন্ন পদক্ষেপ তুলে ধরেন।

প্রধানমন্ত্রী এ সময় জাতির পিতার বক্তৃতার উদ্বৃত করে শিক্ষকদেরকে মানুষ গড়ার কারিগর হিসেবে আখ্যায়িত করে তাদের বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলাদেশ গড়ে তোলায় সুশিক্ষায় শিক্ষিত সোনার ছেলে-মেয়ে তৈরীর আহবান জানান।

আইএ/পাবলিক ভয়েস

মন্তব্য করুন