পাল্টে গেছে আবরারের গ্রামের চিত্র: কথা বললেই জামায়াত-শিবির

প্রকাশিত: ৯:০২ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ১০, ২০১৯

এখন আতঙ্ক নগরী হিসেবে পরিণত হয়েছে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) মেধাবী শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদের নিজ জেলা কুষ্টিয়া। বিশেষ করে আবরারের গ্রাম রায়ডাঙ্গার সাধারণ মানুষ। কোনো কর্মসূচির ঘোষণা দিলেই রাতারাতি হুমকি দিয়ে বন্ধ করে দেয়া হচ্ছে।সবচেয়ে খারাপ অবস্থার মধ্যে রয়েছে আবরারের পরিবার। রায়ডাঙ্গাবাসী ও তার নিজ স্কুল কুষ্টিয়া জিলা স্কুলের শিক্ষার্থীরা ভীতিকর অবস্থার মাঝে দিনযাপন করছে।

আর একাধিক গ্রামবাসী অভিযোগ, কোনোরকম কথা বললেই জামায়াত-শিবির অপবাদে ধরিয়ে দেয়া হবে বলে হুমকি দেয়া হয়ে তাদের।  বৃহস্পতিবার দুপুরে আবরারের গ্রামে গিয়ে দেখা যায়, বুধবারের রায়ডাঙ্গার সঙ্গে বৃহস্পতিবারের রায়ডাঙ্গার কোনো মিল নেই।বুধবার যে রায়ডাঙ্গা আবরারের খুনিদের বিচারের দাবিতে উত্তাল ছিল; রাস্তায় নেমেছিল হাজার হাজার নারী-পুরুষ।তাদের প্রতিবাদের মুখে রায়ডাঙ্গা গ্রাম থেকে পালিয়ে যেতে বাধ্য হয়েছিলেন বুয়েটের উপাচার্য অধ্যাপক সাইফুল ইসলাম। সেই রায়ডাঙ্গায় এখন কেউ মুখ খুলছে না।

সবদিকে সুনসান নীরবতা। সাংবাদিক দেখলেই সবাই নিজেকে আড়াল করার চেষ্টা করছেন। স্থানীয় এক বাসিন্দা জানান, আমাদের সব সময় হুমকি দেয়া হচ্ছে। কোনো কর্মসূচি পালন করা যাবে না। বেশি বাড়াবাড়ি করলে জামায়াত-শিবির বানিয়ে ধরিয়ে দেয়া হবে আওয়ামী লীগ নেতারা এসে বলে যাচ্ছেন।

/মুহসিন/পাবলিকভয়েস

মন্তব্য করুন