দু’কোটি পরে, আগে বাংলার দু’জনের গায়ে হাত দিয়ে দেখাক: মমতা

প্রকাশিত: ৬:৩৫ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১২, ২০১৯

এনআরসির প্রতিবাদে শ্যামবাজারের সভা থেকে কেন্দ্রীয় সরকারকে কড়া হুঁশিয়ারি দিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, দু’কোটি তো পরের কথা, আগে বাংলার দুজন মানুষের গায়ে হাত দিয়ে দেখাক। এনআরসি-র প্রতিবাদে বৃহস্পতিবার সিঁথির মোড় থেকে শ্যামবাজার পর্যন্ত মিছিল করেন তৃণমূলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

এরপর শ্যামবাজার পাঁচ মাথার মোড়ে সভা করেন তিনি। বেলা সাড়ে তিনটেয় শ্যামবাজার পৌঁছয় মিছিল। ততক্ষণে পাঁচ মাথায় মোড় মানুষে মানুষে ছয়লাপ।,সভাস্থলে উপস্থিত ছিলেন বহু সাধারণ মানুষও। রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের কথায়, দীর্ঘদিন বাদে হলেও এদিনের এই মঞ্চ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ক্ষমতা প্রদর্শনের স্থল হয়ে ওঠে। বেলা সাড়ে ৩টায় মঞ্চে উঠে পড়েন নেত্রী।

সভার শুরু থেকেই এনআরসি-র প্রতিবাদে কেন্দ্রের বিরুদ্ধে কথা বলেন মমতা। মমতা বলেন, ‘বাংলায় এনআরসি হবে না। বাংলা কখনও মাথা নত করবে না, বাংলাকে হিংসা করে লাভ হবে না।’ এরপরই কেন্দ্রকে হুঁশিয়ারি দিয়ে তিনি বলেন, ‘বাংলায় ২কোটি তো দূরের কথা, আগে ২ জনের গায়ে হাত দিয়ে দেখাও।’ উল্লেখ্য, এদিন মমতার সভার ঠিক আগেই বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ হুঁশিয়ারি দেন, ‘পশ্চিমবঙ্গে এনআরসি চালু হবেই। দু কোটি মানুষের নাম বাদ যাবে।’

দিলীপ ঘোষের কথার রেশ টেনেই তার পাল্টা দেন মমতা। নেত্রী বলেন, ‘এই লড়াই অস্বিত্ব রক্ষার লড়াই। কেন স্বাধীন নাগরিক পরাধীন হবে? আরেকবার ভারত ভাগের চেষ্টা করবেন না। তা মেনে নেবে না বাংলা।’ তিনি বলেন, ‘আমি বেঁচে থাকতে এনআরসি চালু করতে পারবেন না। আর আমি আমার আগামী চার প্রজন্মও এমন তৈরি করে যাচ্ছি, যে তখনও কেউ এনআরসি চালু করতে পারবে না।’

এদিনের সভা থেকে বিজেপিকে তিনি বার্তা দেন, বাংলায় বিভিন্ন সম্প্রদায়ের মধ্যে ঝগড়া লাগাচ্ছে বিজেপি। বাংলায় এসব বরদাস্ত করা হবে না। ওম শব্দের অর্থ বোঝানোর চেষ্টা করবেন না। আমাদের হিন্দু ধর্ম শেখাতে আসবেন না।’ অসমের এনআরসি প্রসঙ্গ টেনে এনে তিনি হুঁশিয়ারি দেন, ‘পুলিস দিয়ে অসমকে চুপ করালেও বাংলা কিন্তু থেমে থাকবে না। আগুন নিয়ে খেলবেন না।’

 আই.এ/পাবলিক ভয়েস

মন্তব্য করুন