১৯ লাখ লোকের নাগরিকত্ব নিয়ে ছিনিমিনি খেলছে মোদি: পীর সাহেব চরমোনাই

প্রকাশিত: ৮:০৪ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১, ২০১৯

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর আমীর মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করীম পীর সাহেব চরমোনাই মোদি সরকারের উদ্দেশ্যে বলেছেন, আসামে ১৯ লাখ লোকের নাগরিকত্ব নিয়ে ছিনিমিনি খেলা বন্ধ করুন। আসামের এসব নাগরিক রাতারাতি কোনো দেশ থেকে ভেসে আসেনি। আসামের সার্বিক উন্নয়নে যুগ যুগ ধরে তালিকা থেকে বাদ যাওয়া লোকদের গুরুত্বপূর্ণ অবদান রয়েছে। পীর সাহেব চরমোনাই বলেন, কথিত এনআরসি’র মাধ্যমে এসব লোকদের নাগরিকত্ব বাতিলের ষড়যন্ত্র বিশ্ববাসী মেনে নেবে না।

আজ রোববার এক বিবৃতিতে পীর সাহেব চরমোনাই আরো বলেন, ভারতের আসাম রাজ্যে বিতর্কিত চূড়ান্ত নাগরিক তালিকা (এনআরসি) প্রকাশ নরেন্দ্র মোদি-অমিত শাহ’র নীলনকশা বাস্তবায়নের অংশ। আসামের ১৯ লক্ষ বাংলাভাষী হিন্দু ও মুসলিম নাগরিককে পরিচয়হীন ও রাষ্ট্রহীন মানুষে পরিণত করা হয়েছে। বিজেপি’র এই উদ্যোগ চরম সাম্প্রদায়িক ও জাতিবিদ্বেষী আচরণ।

তিনি উল্লেখ করেন বাংলাদেশ থেকে আসা কথিত অবৈধ অভিবাসীদের সনাক্ত ও তাদেরকে বহিস্কার করার সুদূরপ্রসারী নীলনকশার অংশ হিসাবে চরম হিন্দুত্ববাদী ও উগ্র ধর্মনিরপেক্ষতার ধ্বজাধারী বিজেপি সরকার এই উদ্যোগ গ্রহণ করেছে। এর রাজনৈতিক লক্ষ্য হচ্ছে বাংলাদেশের সীমান্তবর্তী ভারতের রাজ্যসমূহে সাম্প্রদায়িক বিভাজন ও উত্তেজনার বিস্তার ঘটানো এবং এর মাধ্যমে ভারতের উত্তর পূর্বাঞ্চলীয় অবশিষ্ট রাজ্যসমূহে বিজেপি’র সাম্প্রদায়িক সরকার প্রতিষ্ঠা করা।

তিনি এই ব্যাপারে বাংলাদেশ সরকারকে স্পষ্ট অবস্থান নিয়ে নাগরিকপঞ্জি থেকে বাদ দেয়া ১৯ লক্ষ ভারতীয়কে নাগরিকত্ব প্রদান করে আসামে তাদের নাগরিক অধিকার নিশ্চিত করতে ভূমিকা পালনের আহ্বান জানান।

/এসএস

মন্তব্য করুন