হজের খুতবা দিবেন শায়খ মুহাম্মদ বিন হাসান আলে আশ-শায়খ

প্রকাশিত: ১১:২৭ পূর্বাহ্ণ, আগস্ট ১০, ২০১৯

এবারের হজের খুতবা দিবেন শায়খ মুহাম্মদ বিন হাসান আলে আশ-শায়খ। পবিত্র হজ পালনে এবার বহিঃবিশ্ব থেকে জড়ো হয়েছে ১৮ লাখেরও বেশি শিশু-কিশোর-যুবক নারী-পুরুষ। ঐতিহাসিক আরাফাতের ময়দানের উদ্দেশে এদের কেউ পথে কেউ ময়দানে। সৌদি আরব হজ কর্তৃপক্ষও নিয়েছে যথাযথ নিরাপত্তা ব্যবস্থা।

সৌদি আরবের রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা সূত্রে জানা যায়, দুই পবিত্র মসজিদের খাদেম সৌদি আরবের বাদশাহ সালমান বিন আব্দুল আজিজ আল-সৌদ এক রাজকীয় ফরমান জারির মাধ্যমে এ বছর আরাফাতের ময়দানে খতিব হিসেবে শায়খ ড. মুহাম্মদ বিন হাসান আলে আশ-শায়খকে নিয়োগ প্রদান করেন।

ভোর থেকে আরাফামুখী লাখো ধর্মপ্রাণ মুসলমান। বিশ্ব মুসলিম সম্মিলনের এক সামিয়ানায় সমবেত হতে দলে দলে সবাই আরাফার দিকে ছুটছে। তাদের লাব্বাইক ধ্বনি মুখরিত করে তুলছে আরাফাত প্রান্তর। দুপুরের আগেই আরাফা ও পার্শ্ববর্তী নির্ধারিত সীমানায় হাজির হবে হজ পালনকারীরা। কানায় কানায় পরিপূর্ণ হয়ে যাবে জাবালে রহমতসহ পুরো আরাফাত ময়দান।

বিশ্বব্যাপী মুসলিম উম্মাহও আজ হজ পালনকারীদের সঙ্গে আল্লাহর ইবাদত-বন্দেগিতে তাদের জন্য দোয়া কামনা করছে। যাতে হজে গমনকারীরা সুন্দর নিরাপদে সুস্থভাবে হজ সম্পাদন করতে পারে। দুনিয়া ও আখিরাতের কল্যাণ, রহমত প্রাপ্তি ও নিজেদের গোনাহ মাফের জন্য আল্লাহ তাআলার দরবারে অশ্রুসিক্ত নয়নে ফরিয়াদ জানাবে সমবেত ধর্মপ্রাণ মুসলমান। বিশ্ব ভ্রাতৃত্বের এক অনুপম দৃশ্যের অবতারণা হবে আজ আরাফাতের ময়দানে।

আজ ৯ জিলহজ (শনিবার) সূর্যোদয়ের পর থেকে শুরু হয়েছে আরাফাতের ময়দানে উপস্থিত হওয়ার পালা। চলবে সূর্য ডোবার আগ পর্যন্ত। এ সময়ের মধ্যে এক মুহূর্তের জন্য হলেও হজ পালনকারীদের আসতে হবে এ ময়দানে। তবেই পরিপূর্ণ হবে হজ। দিনভর কান্নাকাটি দোয়া-ইসতেগফারের পর সূর্য ডোবার সঙ্গে সঙ্গে রওয়ানা হবে মুজদালিফায়। যেখানে খোলা আকাশের নিচে রাত কাটাবে মুসলিম উম্মাহ। আর এর মাধ্যমেই পালিত হবে হজ।

ইসমাঈল আযহার/পাবলিক ভয়েস

মন্তব্য করুন