মন্দিরে হামলার নিন্দা ও সংখ্যালঘু প্রতিষ্ঠান সিসি ক্যামেরাভুক্ত করার দাবি মুফতী ফয়জুল করীমের

প্রকাশিত: ৪:৪৪ অপরাহ্ণ, আগস্ট ৫, ২০১৯

বরিশালের গৌরনদীর কালি মন্দিরে দুর্বৃত্তদের হামলায় নিন্দা ও ক্ষোভ প্রকাশ করেছে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ। একই সাথে হামলার সাথে জড়িতদের খুঁজে বের করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির আওতায় আনার দাবিও জানায় দলটির বিভিন্ন পর্যায়ের নেতারা গতকাল রোববার বরিশালের গৌরনদীতে মন্দিরে হামলার নিন্দা জানিয়ে বক্তব্য দেন দলের শীর্ষ নেতারা।

রাজধানীর পুরানা পল্টনে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ’র কার্যালয়ে আয়োজিত এক মতবিনিময় সভায় দলের নায়েবে আমীর মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ ফয়জুল করীম বলেন, গৌরনদীতে মন্দিরে হামলার নিন্দা জানাচ্ছি এবং এর সাথে জড়িতদের দ্রুত গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানাচ্ছি। সেই সাথে সংখ্যালঘুদের সকল ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান সিসি কামেরার আওতাভুক্ত করার জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি।

মুফতী সৈয়দ ফয়জুল করীম বলেন, এর আগে বিভিন্ন মন্দিরে হামলা করতে গিয়ে হিন্দু যুবক গ্রেফতারের সংবাদ দেশবাসী দেখেছে। কিন্তু তাদেরকে জনতার মুখোমুখি করা হয়নি, কেন তারা মন্দিরে হামলা করেছে, এর পিছনে কারা কল-কবজা নাড়ছে। গতকাল গৌরনদীর কালি মন্দিরে হামলা করা হয়েছে, এই হামলা কারা করেছে, তাদের আইনের আওতায় আনলে ঘটনার আসল রহস্য বোঝা যাবে।

তিনি বলেন, দেশের মন্দিরগুলোকে সিসি ক্যামেরার আওতায় আনতে হবে। দেশের সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্ট করতে একটি মহল উঠেপড়ে লেগেছে। ওই মহলটি ইতিমধ্যেই বিভিন্ন মন্দিরে হামলা করে তার দায়ভার মুসলমান তথা ইসলামপন্থিদের উপর চাপানোর চেষ্টা করছে। তিনি আরও বলেন, আমাদের শঙ্কা হচ্ছে ওই মহলটি বাংলাদেশের বিভিন্ন মন্দিরে হামলা করে এর দায়ভার এদেশের মুসলমানদের উপর চাপাতে পারে এবং এদেশকে একটি ব্যর্থ ও অকার্যকর রাষ্ট্র হিসেবে চিহ্নিত করে বিদেশী সৈন্য আমদানির ক্ষেত্র প্রস্তুত করতে পারে।

তিনি দেশের সকল মন্দিরসহ সংখ্যালঘুদের সকল ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানকে সিসি ক্যামেরার আওতায় আনার জন্য সরকারকে নির্দেশ জারি করার দাবি জানান। এক্ষেত্রে কোন বিভ্রান্ত মুসলমানও যদি কোন হামলার সাথে জড়িত থাকে তাহলে তারও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দিতে হবে।

মতবিনিময় সভায় অন্যানের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ’র কেন্দ্রীয় প্রচার সম্পাদক মাওলানা আহমদ আবদুল কাইয়ূম, মাওলানা দেলাওয়ার হোসাইন সাকী, অধ্যাপক সৈয়দ বেলায়েত হোসেন, মুফতী মোস্তফা কামাল, শহিদুল ইসলাম কবির, সৈয়দ ওমর ফারুক, মাওলানা আব্দুর রহমান আজাদসহ আরও অনেকে।

/এসএস

মন্তব্য করুন