ঈশ্বরের নাম বলায় সমস্যা নেই : ‘জয় শ্রীরাম’ নিয়ে মুখ খুললেন নুসরাত

প্রকাশিত: ৭:৫৮ অপরাহ্ণ, জুলাই ১৪, ২০১৯

ইসমাঈল আযহার
পাবলিক ভয়েস

গত বেশ কিছুদিন যাবৎ ভারতে জোর করে মুসলিমদের ‘জয় শ্রীরাম’ বলানো হচ্ছে। মাদরাসা ছাত্রসহ সাধারণ মুসলিমের বিনা কারণে মারধর করা হচ্ছে। কখনো আবার গরুর গশত খাওয়ার অভিযোগ এনে নির্যাতন করা হচ্ছে দেশটির মুসলিমদের। ‘জয় শ্রীরাম ইস্যূতে রাজনীতিসহ বিভিন্ন মহলে বিতর্ক ছড়িয়ে পড়েছে।  এটি নিয়ে এবার মুখ খুললেন, বসিরহাটের সাংসদ ও টালিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রী নুসরাত জাহান।

ভারতীয় গণমাধ্যমের এক সাক্ষাৎকারে নুসরাত বলেন, ঈশ্বরের নাম বলায় কোনও সমস্যা নেই। কিন্তু কাউকে বলতে বাধ্য করায় সমস্যা আছে। ঈদে আমাকেও প্রায় হাজারজন ঈদ মোবারক না লিখে ‘জয় শ্রীরাম’ লিখে পাঠিয়েছেন। তবে আমি কোনও উত্তর দেইনি।

এর আগে  হিন্দুকে বিয়ে ও মাথায় সিঁদুর লাগানো নিয়ে বিতর্কের জন্ম দিয়েছিলেন তিনি। এ বিষয়ে তিনি বলেছিলেন, ‘আমার মাথায় সিঁদুর দেখে অনেকে প্রশ্ন করেছেন, আমি কি হিন্দুকে বিয়ে করে হিন্দু হয়ে গেলাম? আমার তো মনে হয় কোন ধর্ম অনুসরণ করব, সেই সিদ্ধান্ত নেওয়ার অধিকার সকলের রয়েছে। আমি জন্মসূত্রে মুসলিম। সেটাই অনুসরণ করছি। কিন্তু সব ধর্ম এবং তার নিয়মের প্রতি শ্রদ্ধা রয়েছে আমার। আমি এবং আমার স্বামী আমাদের ধর্ম পালন করছি। আমার তো মনে হয় এটাই স্বাভাবিক।’

নুসরাতের এমন কর্মের নিন্দা করেন ভারতের মুসলিমরা। সাথে সাথে দেওবন্দ থেকে তার বিরুদ্ধে ফতোয়া দেওয়া হয়। সে প্রসঙ্গে এই অভিনেত্রী বলেন, ‘আমার বিরুদ্ধে কোনও ফতোয়া জারি করা হয়েছে বলে তো শুনিনি। আমরা নতুন, প্রগতিশীল ভারতে বাস করি, যেখানে সব ধর্ম ও সংস্কারকে শ্রদ্ধা করা হয়। ঈশ্বরের নামে ভেদাভেদ কেন? হ্যাঁ, আমি একজন মুসলিম। আমি ধর্মনিরপেক্ষ ভারতবর্ষের নাগরিক। আমার ধর্ম আমাকে মানুষের মধ্যে ভেদাভেদ করতে শেখায় না।’

আইএ/

মন্তব্য করুন