‘ওরিন নাশিদ হৃদি’র শিক্ষা জীবনের সাফল্যে ময়মনসিংহে সংবর্ধনা

প্রকাশিত: ১০:২৩ পূর্বাহ্ণ, জুন ১৬, ২০১৯

ময়মনসিংহ প্রেসক্লাবের সিনিয়র সদস্য আব্দুল ওয়াদুদ সরকারের মেয়ে “ওরিন নাশিদ হৃদি”র শিক্ষা জীবনে সাফল্যের জন্য রাষ্ট্রপতি স্বর্ণপদক ও প্রধানমন্ত্রীর স্বর্ণপদক পাওয়ায় ময়মনসিংহ প্রেসক্লাব মিলনায়তনে এক জমকালো সংবর্ধনা দেওয়া হয়েছে।

গতকাল শনিবার (১৫ জুন) রাতে ময়মনসিংহ প্রেসক্লাব মিলনায়তনে এ সংবর্ধনার আয়োজন করা হয়। সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ সরকারের সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ।

তিনি তার বক্তব্যে জঙ্গিবাদ রুখতে গণমাধ্যম ও সংস্কৃতিকর্মীদের আরও কার্যকরী ভূমিকা পালন করার আহ্বান জানিয়েছেন ।

জেলা প্রশাসক ড. সুভাষ চন্দ্র বিশ্বাসের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন ময়মনসিংহ প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক শেখ মহিউদ্দিন আহম্মেদ।

এতে আরও বক্তব্য রাখেন- ময়মনসিংহ প্রেসক্লাবের সহ-সভাপতি নওয়াব আলী, ডা: কে আর ইসলাম, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের অধ্যাপক প্রদীপ কুমার পান্ডে প্রমুখ।

এসময় জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তা, স্থানীয় জনপ্রতিনিধি, আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীসহ ক্লাবের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

সংবর্ধনা অনুষ্ঠান শেষে ওরিন নাশিদ হৃদির কণ্ঠে একক সঙ্গীতানুষ্ঠান পরিবেশিত হয়।

ময়মনসিংহের কৃতি শিক্ষার্থী অরিন নাশিদ হৃদি শিক্ষা জীবনে সাফল্যের স্বাক্ষর রেখে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর কাছ থেকে স্বর্ণপদক পেয়েছেন।

এক নজরে হৃদির শিক্ষা জীবন ও বিভিন্ন পুরস্কার অর্জন


  • ১৯৯৮ সালে পঞ্চম শ্রেণীতে বৃত্তিপ্রাপ্তি।
  • ২০০০ সালে ময়মনসিংহ গার্লস ক্যাডেট কলেজে ভর্তি হয়ে ২০০৪ ও ২০০৬ এ মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক পাশ।
  • ২০০৭-১০ সালে জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সংগীত বিভাগে প্রথম শ্রেনীতে প্রথম হয়ে বি.এ (সম্মান) ডিগ্রি অর্জন।
  • ২০১৩ সালে বিশ্ববিদ্যালয়ে সর্বোচ্চ সিজিপিএ ৩.৮৮ অর্জন করে প্রধানমন্ত্রীর স্বর্ণপদকপ্রাপ্তি।
  • ২০১৭ সালে মাস্টার্সে প্রথম শ্রেনীতে প্রথম হয়ে রাষ্ট্রপতি স্বর্ণপদকপ্রাপ্তি।

শিক্ষাজীবন থেকে নিয়ে এ পর্যন্ত হৃদির রয়েছে আরও অনেক অর্জন। এমনকি ১৯৯৯ সালে পবিত্র কুরআনুল কারীমের এক ক্বিরাত প্রতিযোগীতায় হৃদি সারা বাংলাদেশে প্রথম হওয়ার গৌরব অর্জন করেছিলেন। এছাড়াও বাংলাদেশ টেলিভিশন, চ্যানেল আই-সহ বেশকিছু টিভি মিডিয়া ও বিভিন্ন সংগীত প্রতিযোগিতায় হৃদির রয়েছে অসামান্য কিছু অর্জন। বর্তমানে তিনি একজন সাংস্কৃতিক কর্মী হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেছেন।

কর্ম জীবনে ময়মনসিংহ গার্লস ক্যাডেট কলেজে খন্ডকালীন শিক্ষিক ও মিরপুর ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল অ্যান্ড কলেজের সংগীত বিভাগের দায়িত্ব পালন করে বর্তমানে বাংলাদেশের স্বনামধন্য পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের সংগীত বিভাগের অধ্যাপনায় নিয়োজিত রয়েছেন।

তিনি অধ্যাপনার পাশাপাশি আবৃত্তি, ছড়া কবিতা, রবিন্দ্র সংগীতসহ সাংস্কৃতিক অঙ্গনে অনেক বড় অবদান রেখে আসছেন। এমনকি “সংগীতা” ব্যানারে তার একটি লোকসংগীতের অ্যালবাম সিডিও বের হয়েছে।

ব্যাক্তিগত জীবনে হৃদি স্বামী ও এক কণ্যাসন্তান নিয়ে জীবনযাপন করছেন। তার স্বামী দেশের প্রথমসারির একটি বেসরকারি টিভি চ্যানেলে কর্মরত রয়েছেন।

এইচআরআর/পাবলিক ভয়েস

মন্তব্য করুন