বিনিয়োগকারীরা ফিরে পেলেন ২২ হাজার কোটি টাকার পুঁজি 

প্রকাশিত: ২:০১ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ৫, ২০১৯
ডিএসই-সিএসই লোগোর ছিবি

পাবলিক ভয়েস : সূচকের ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতায় নতুন বছরের প্রথম সপ্তাহে দেশের উভয় পুঁজিবাজারে লেনদেন হয়েছে। বিদায়ী সপ্তাহে (১-৩ জানুয়ারি) মোট তিন কার্যদিবস লেনদেন হয়েছে।

এ সময় সূচক, লেনদেন ও বেশির ভাগ কোম্পানির শেয়ারের দাম বেড়েছে। ফলে পুঁজিবাজারের বিনিয়োগকারীরা নতুন বছরের শুরুতে ফিরে পেয়েছেন ২২ হাজার কোটি টাকার বেশি পুঁজি।

এর মধ্যে দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) বিনিয়োগকারীরা পুঁজি ফিরে পেয়েছেন সাড়ে ১০ হাজার কোটি টাকা। অপর পুঁজিবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) বিনিয়োগকারীরা ফিরে পেলেন সাড়ে ১১ হাজার কোটি টাকা।

ডিএসইর তথ্য মতে, ২০১৯ সালের প্রথম সপ্তাহে ডিএসইতে লেনদেন হওয়া কোম্পানির মধ্যে দাম বেড়েছে ৩১২টির, কমেছে ২৯টির আর অপরিবর্তিত রয়েছে ৬ কোম্পানির শেয়ারের দাম। এর আগের সপ্তাহে লেনদেন হওয়া কোম্পানির মধ্যে দাম বেড়েছিলো ২১০টির, কমেছিলো ১১২টির এবং অপরিবর্তিত ছিলো ২৪ কোম্পানির শেয়ারের দাম।

ফলে তিন সূচক পথচলা ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স আগের সপ্তাহের চেয়ে ২০৪ পয়েন্ট বেড়ে ৫ হাজার ৫৯০ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। অন্য দুই সূচকের মধ্যে ডিএস-৩০ সূচক ১ হাজার ৯৪১ পয়েন্ট এবং ডিএসইএস ৩৮ পয়েন্ট বেড়ে ১ হাজার ২৭১ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে।

বেশির ভাগ শেয়ারের দাম ও সূচক বৃদ্ধির ফলে আগের সপ্তাহের চেয়ে ৫১৩ কোটি টাকা বেড়ে বিদায়ী সপ্তাহে মোট লেনদেন হয়েছে ২ হাজার ১৫১ কোটি ৫৪ লাখ ৪ হাজার ৬৭ টাকা। এর আগের সপ্তাহে লেনদেন হয়েছিলো ১ হাজার ৬৩৭ কোটি ৬৪ লাখ ১৯ হাজার ৪১৮ টাকা। যা শতাংশের হিসেবে ৩১ দশমিক ৩৮ শতাংশ বেশি।

দেশের অপর বাজার সিএসইতে বিদায়ী সপ্তাহে লেনদেন হওয়া কোম্পানির মধ্যে দাম বেড়েছে ২৬৪টির কমেছে ১৯টির আর অপরিবর্তিত রয়েছে ৮ কোম্পানির শেয়ারের দাম। এর ফলে সিএসইর সার্বিক সূচক আগের সপ্তাহের চেয়ে ১ হাজার ৩২৩ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৭ হাজার ১৬৬ পয়েন্টে।

লেনদেন ও সূচক বৃদ্ধি পাওয়ায় বিদায়ী সপ্তাহে সিএসইতে লেনদেন হয়েছে ১২৪ কোটি ৯৮ লাখ ৪৮ হাজার ৩৮০ টাকা। যা আগের সপ্তাহের চেয়ে বেশি। সবুজ

মন্তব্য করুন