মুখোমুখি জমিয়তের দুই যুগ্ম মহাসচিব

প্রকাশিত: ৯:০৪ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ১৭, ২০১৮

ডেস্ক প্রতিবেদক: ১৬ ডিসেম্বর বিজয় দিবসে শহীদ মিনারে পুস্পস্তবক অর্পণ করা নিয়ে মুখোমুখি অবস্থান নিয়েছেন জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশের দুই অংশের দুই যুগ্ম মহাসচিব।

জমিয়তের মাও. নুর হোসাইন কাসেমী অংশের যুগ্ম মহাসচিব নারায়নগঞ্জ-৪ আসনে সংসদ সদস্য প্রার্থী মুফতী মুনির কাসেমী গত ১৬ ডিসেম্বর শহীদ মিনারে পুস্পস্তবক অর্পণ করা নিয়ে বেশ ক্ষুদ্ধ প্রতিক্রিয়া দেখা গেছে অনেকের মধ্যেই। সে প্রতিক্রিয়া দেখানো থেকে বাদ যায়নি জমিয়তের মুফতি ওয়াক্কাস অংশের যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা ওয়ালী উল্লাহ আরমান।

শহীদ মিনারে পুস্পস্তবক অর্পণ করা নিয়ে “আজকের এই চিত্র ভবিষ্যতে বহু অকল্যাণ আর অনিষ্টের দৃষ্টান্ত হিসেবে দাঁড়িয়ে যাবে না তো” শিরোনামে তিনি একটি দীর্ঘ ফেসবুক পোস্ট লেখেন যেখানে তিনি মুনির কাসিমীর এ কাজের তীব্র সমালোচনা করেন।
তিনি আরো লিখেন, “বিএনপি’র করুণা আর দয়া-দাক্ষিণ্যে প্রাপ্ত ৩/৪জন প্রার্থী যদি সংসদে নাও যেতে পারেন, তাতে দ্বীনের এমন কিছু এসে যাবে না। কিন্তু দ্বীনের মৌলিকত্ব এবং যে বিষয়টিকে যুগ যুগ ধরে ওলামায়ে কেরাম ‘হারাম এবং শিরক’ বলছেন, সেই হারামকে সামান্য সংসদে যাওয়ার জন্য কিভাবে প্রকাশ্যে পালন করতে পারেন?”

এ ব্যাপারে নুর হোসাইন কাসেমী অংশের জমিয়তের যুগ্ম মহাসচিব মুনির কাসিমীর সাথে যোগাযোগ করলে এ বিষয়ে কোন মন্তব্য করতে রাজি হননি তিনি।

শহীদ মিনারে পুস্পস্তবক অর্পণ করার এই ঘটনা নিয়ে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া দেখিয়েছেন আরো অনেকেই। সোশ্যাল মিডিয়ায় অনেকেই এ বিষয়ে প্রশ্ন তুলেছেন।

প্রসঙ্গত : ইসলামী শরিয়তে দেশপ্রেম, দেশভক্তি লালনের শিক্ষা থাকলেও শহীদ বেদিতে ফুল দেয়া নিয়ে আলেমদের মধ্যে মতপার্থক্য রয়েছে।

মন্তব্য করুন