নিজ সন্তানদের বিক্রি করে দিচ্ছে আফগানের অনেক পরিবার

প্রকাশিত: ৮:০০ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ২২, ২০১৮
মামারীন তার সন্তান আখিলকে বিক্রি করে দিয়েছেন : ছবি সিএনএন

যুদ্ধের ভয়াবহতায় আফগানিস্তানের অনেক পরিবারকে চরমভাবে অসহায় করে তুলেছে। তারা তাদের সন্তানদের বিক্রি করে দিতে বাধ্য হচ্ছেন।

যুদ্ধবিধ্বস্ত আফগানিস্তানে এর মধ্যে দুর্ভিক্ষের কবলে পড়েছেন অনেকে। ভয়াবহ শুস্কতা তাদেরকে যুদ্ধ পরিস্থিতির চেয়েও বেশি কষ্টে ফেলে দিয়েছে। তারা নিজেদেরকে চরমভাবে অসহায় অবস্থায় আবিস্কার করছে।

এই ভয়াবহতায় দেখা গেছে অনেক মা তাদের সন্তানকে বিক্রি করে দিচ্ছেন। তেমনই একজন মা হলেন “মামারীন” যিনি তার সন্তানকে তিন হাজার ডলারের বিনিময়ে বিক্রি করে দিয়েছেন। কিন্তু যার কাছে বিক্রি করেছেন তিনিও অনেকটা দরিদ্র। তার কাছে সব টাকা পাওয়ার সম্ভাবনাও তার নেই। এখন পর্যন্ত তিনি মাত্র ৯৬ ডলার পেয়েছেন।

মামারিন বলেন,এটা  তার হৃদয়ের একটা অংশ বিক্রি করার মত।

তিনি যুদ্ধে তার স্বামীকে হারিয়েছেন এবং এখন তার তিন সন্তানকে সঙ্গে নিয়ে একটি দুর্ভিক্ষগ্রস্ত গ্রামে পালিয়ে যাওয়ার পর একটি তাঁবু শহরে বাস করছেন। মামারিনকে ৩০০০ ডলারের জন্য বিক্রি করতে বাধ্য করা হয়েছে।

সন্তান কেন বিক্রি করছে জানতে চাইলে সে বলেন,

“আমার কোন টাকা ছিল নাই, কোন খাবার ছিল নাই আর কোন রুটিও ছিল নাই” আমার মেয়ে জানে না যে আমি তাকে বিক্রি করেছি। সে কিভাবে জানবে ? সে একটি শিশু। কিন্তু আমার অন্য কোন উপায় ছিল না।

আফগানিস্তানের অনেক অঞ্চলেই এই ভয়াবহ গল্প চিত্রায়িত হচ্ছে বলে জানা যায়।

মামারীনের মত এমন অনেককেই দেখা গেছে যারা তাদের সন্তান বিক্রি করে দিচ্ছে। একটি চার বছর বয়সী মেয়েকে ঋণ নিষ্পত্তি করার জন্য ২০ বছর বয়েসি একজন মানুষের কাছে বিক্রি করে দেয়া হয়েছে।

আফগানিস্তানে সবচেয়ে ভয়াবহ দুর্ভিক্ষ দেখা গেছে এ বছর। তাদের ফসল শুকিয়ে গেছে, যুদ্ধে পশুদের হত্যা করা হয়েছে এবং হাজার হাজার মানুষকে আমেরিকান সৈন্যরা তাদের খামার পরিত্যাগ করার জন্য বাধ্য করেছে।

 

জাতিসংঘের তথ্যমতে, আফগানিস্তানের ৩৪ টি প্রদেশে ২০ লাখ মানুষ গুরুতর ঝুঁকিপূর্ণ।

সেই অঞ্চলে যেখানে মামারিন ও তার পরিবার কমপক্ষে ৪,৫০,০০০ হাজার মানুষকে খাদ্য ও পানি সংকটের মুখোমুখি হতে হচ্ছে।

যারা তাদের বাচ্চাদের বিক্রি করছে না, তেমন ক্ষুধার্ত পরিবারগুলো তাদের পশুদের খুব কম দামে বিক্রি করে ফেলছে যাতে তারা খাবার কিনতে পারে।

 

এইচ/আর

মন্তব্য করুন